বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > পাক জেলে ১৪ বছর বন্দি ছিলেন ‘গুপ্তচর’, ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ SC-র
সুপ্রিম কোর্ট (HT File Photo) (HT_PRINT)

পাক জেলে ১৪ বছর বন্দি ছিলেন ‘গুপ্তচর’, ১০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ SC-র

  • মামলার বয়ান অনুযায়ী, আবেদনকারী রাজস্থানের বাসিন্দা। ১৯৬৬ সালে তিনি প্রথমে ডাক বিভাগে চাকরি পান। এরপর ১৯৭২ সালে তিনি ভারত সরকারের স্পেশাল ব্যুরো অফ ইন্টেলিজেন্সের কাছ থেকে একটি প্রস্তাব পেয়েছিলেন। প্রস্তাবে তাকে পাকিস্তানে গুপ্তচরবৃত্তির জন্য নিযুক্ত করা হয়। সেইমতো তিনি রাজিও হন।

গুপ্তচরবৃদ্ধির জন্য ১৪ বছর পাকিস্তানে জেলে বন্দি ছিলেন। কিন্তু, মুক্তি পেয়ে ভারতে ফেরার পর চাকরি হারিয়েছিলেন। ওই ব্যক্তিকে ১০ লক্ষ টাকা দেওয়ার জন্য কেন্দ্রকে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। আবেদনকারী মাহমুদ আনসারীর করা মামলায় এই নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি ইউ ইউ ললিত ও বিচারপতি রবীন্দ্র ভটের ডিভিশন বেঞ্চ।

আরও পড়ুন: বিহার-গুজরাটের মতো এবার গোটা দেশে নিষিদ্ধ হবে মদ? তাৎপর্যপূর্ণ পর্যবেক্ষণ SC-র

মামলার বয়ান অনুযায়ী, আবেদনকারী রাজস্থানের বাসিন্দা। ১৯৬৬ সালে তিনি প্রথমে ডাক বিভাগে চাকরি পান। এরপর ১৯৭২ সালে তিনি ভারত সরকারের স্পেশাল ব্যুরো অফ ইন্টেলিজেন্সের কাছ থেকে একটি প্রস্তাব পেয়েছিলেন। প্রস্তাবে তাকে পাকিস্তানে গুপ্তচরবৃত্তির জন্য নিযুক্ত করা হয়। সেইমতো তিনি রাজিও হন। এরপরে তিনি দু'বার পাকিস্তানে গোপন মিশনে গিয়ে সফল হয়েছিলেন। কিন্তু তৃতীয়বার তাকে পাকিস্তানে পাঠানো হলে পাক সেনা তাকে গ্রেফতার করে। ১৯৭৬ সালে পাকিস্তানে গ্রেফতার হওয়ার পর সেখানে তার বিচার চলে। বিচারে তার ১৪ বছর সাশ্রম কারাদণ্ডের নির্দেশ দেয় পাক আদালত। ১৯৮৯ সালে পাকিস্তান কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে তিনি ভারতে আসেন। সেখানে এসে কাজ পুনরায় শুরু করার জন্য কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তাকে জানানো হয়ে তাকে ১৯৮০ সালে কাজ থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

দীর্ঘ সময় পর প্রথমে তিনি ট্রাইব্যুনালের দ্বারস্থ হন। তবে ২০০০ সালে ট্রাইব্যুনাল তার আবেদন খারিজ করে দেয়। পরে ২০১৭ সালে রাজস্থান হাইকোর্টও তার আবেদন খারিজ করে দেয়। এরপরে ২০১৮ সালে তিনি সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন। প্রথমে সুপ্রিম কোর্ট ৫ লক্ষ টাকা দেওয়ার জন্য কেন্দ্রকে নির্দেশ দেয়। পরে তার আইনজীবী আবেদন করেন বর্তমানে তার মক্কেলের বয়স ৭৫ বছর। তিনি তার মেয়ের উপরই নির্ভরশীল। তার ভিত্তিতে তাকে ১০ লক্ষ টাকা দেওয়ার জন্য কেন্দ্রকে নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

বন্ধ করুন