বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ডায়বিটিজ নিয়ন্ত্রণে রাখতে চান? খেতে পারেন মেথি, টমেটো, রসুন
পালক ও মেথিতে কার্বোহাইড্রেট কম পরিমাণে থাকায় ব্লাড শুগার বাড়ে না।
পালক ও মেথিতে কার্বোহাইড্রেট কম পরিমাণে থাকায় ব্লাড শুগার বাড়ে না।

ডায়বিটিজ নিয়ন্ত্রণে রাখতে চান? খেতে পারেন মেথি, টমেটো, রসুন

এমন কিছু ফল ও সবজি সম্পর্কে জানানো রইল, যা রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করবে।

রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রত্যেকেই উদ্যোগী। যাঁরা মধুমেহ রোগে আক্রান্ত, তাঁরা তো বটেই। এক্ষেত্রে খাওয়া-দাওয়া, জীবনযাপন প্রণালী— সবক্ষেত্রেই সঠিক হিসেব করে চলতে হয়। এখানে এমন কিছু ফল ও সবজি সম্পর্কে জানানো রইল, যা রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করবে।

সবুজ শাক-সবজি-পালক, মেথির মতো শাকে ভিটামিন ও খনিজ পাওয়া যায় এবং ক্যালরির পরিমাণও কম থাকে। এই শাকগুলিতে কার্বোহাইড্রেট কম পরিমাণে থাকায় ব্লাড সুগার বৃদ্ধি পায় না। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকার কারণে এটি চোখ ও হৃদয়ের জন্যও উপকারি।

হলুদ- এতে উপস্থিত কার্কিউমিন শুধুমাত্র হৃদরোগ থেকেই রক্ষা করে না, বরং রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সাহায্য করে।

রসুন- ব্লাড সুগার ও কোলেস্টেরল কম করতে রসুন উপযোগী। মধুমেহ রোগীদের নিজের খাদ্য তালিকায় অবশ্যই রসুন অন্তর্ভুক্ত করা উচিত। 

টমেটো- সকালে খালি পেটে টমেটোর রস খেলে ডায়াবিটিসের রোগীরা উপকার পান। টমেটোর রসে নুন ও গোলমরিচ মিশিয়ে পান করলে রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে থাকে।

আখরোট- এতে ভিটামিন-ই থাকে। এই ভিটামিন ব্যক্তিকে টাইপ-২ ডায়বিটিস থেকে সুরক্ষিত রাখে। এমনকী হৃদরোগ আশঙ্কা ও কোলেস্টেরল কমাতেও আখরোট উপকারী।

বন্ধ করুন