বাংলা নিউজ > ময়দান > Aus vs Ind: 'একদিন ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে সফল না হলে টেস্টে ৪-০ ব্যবধানে উড়ে যাবে ভারত'
বিরাট ও বুমরাহ ভারতেই দুই সেরা বাজি বলে দাবি করেন ক্লার্ক। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)
বিরাট ও বুমরাহ ভারতেই দুই সেরা বাজি বলে দাবি করেন ক্লার্ক। (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)

Aus vs Ind: 'একদিন ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে সফল না হলে টেস্টে ৪-০ ব্যবধানে উড়ে যাবে ভারত'

ভারতের সেরা দুই বাজি কারা, তা জানিয়েছে বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক।

আগামী শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ। প্রথমে একদিনের সিরিজ হবে। তারপর হবে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। সর্বশেষে টেস্ট সিরিজের লড়াই শুরু হবে। কিন্তু টেস্ট সিরিজের ভাগ্য নির্ধারণ করবে সেই একদিন এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজের উপর। এমনটাই মনে করছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক।

তাঁর মতে, পিতৃত্বকালীন ছুটির জন্য শেষ তিনটি টেস্টে বিরাট কোহলি না খেলতে পারলেও লাল বলের সিরিজে ভারতের ভাগ্য নির্ধারণে বড় ভূমিকা নিতে পারেন ভারত অধিনায়ক।মঙ্গলবার স্কাই স্পোর্টস রেডিয়োয় ক্লার্ক বলেন, ‘এই একদিনের ম্যাচ এবং টি-টোয়েন্টিগুলিতে বিরাট কোহলি সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিতে পারে। আমার মতে, দলে বিরাট যে ছন্দ তৈরি করবে, তা প্রথম টেস্টের পরে (যখন বিরাট ফিরবেন) বড় ভূমিকা পালন করবে।’ 

সেই ছন্দের উপরই সিরিজের ভাগ্য নির্ধারণ করবে বলে জানিয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক। তাঁর কথায, ‘আমার মতে, ভারত যদি একদিনের ম্যাচ এবং টি-টোয়েন্টিতে সাফল্য না পায়, তাহলে টেস্টে ওরা বড়সড় বিপদের মুখে পড়বে। ওরা ৪-০ ব্যবধানে উড়ে যাবে।’

ক্লার্কের মতে, বিরাটের পাশাপাশি ভারত-অস্ট্রেলিয়া মহারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন জসপ্রীত বুমরাহ। অজি ব্যাটসম্যানদের চাপে ফেলার জন্য তাঁকে ক্রমাগত আগ্রাসী বোলিং করতে হবে। ক্লার্ক বলেন, ‘ও দ্রুতগতির বোলার। ওর অ্যাকশন সত্যিই আলাদা। তাই আমার মতে, (ভারতের হয়ে) ওকে ছন্দ তৈরি করতে হবে এবং অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের অত্যন্ত আগ্রাসী হতে হবে। স্টিভ স্মিথের মতো খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধেও ওকে ক্রমাগত এবং ধারাবাহিকভাবে শর্ট বল ব্যবহার করতে হবে। যেমন অ্যাসেজে স্টিভ স্মিথের সঙ্গে করেছিল জোফ্রা আর্চার।’

বিরাট ও বুমরাহ ভারতেই দুই সেরা বাজি বলে দাবি করেন ক্লার্ক। তিনি বলেন, ‘অজিদের বিরুদ্ধে টক্কর দিতে হবে ওঁদের (বিরাট এবং বুমরাহ) এবং অস্ট্রেলিয়ানদের বিরুদ্ধে ভারতের দুই সেরা খেলোয়াড়কে আগ্রাসী হতে হবে।’

বন্ধ করুন