বাংলা নিউজ > ময়দান > কাউন্টিতে ১০০০ রান পূর্ণ করলেন পূজারা, দলের বিপর্যয়েও একা লড়লেন ব্যাট হাতে
চেতেশ্বর পূজারা। ছবি- টুইটার (@cheteshwar1)।

কাউন্টিতে ১০০০ রান পূর্ণ করলেন পূজারা, দলের বিপর্যয়েও একা লড়লেন ব্যাট হাতে

  • সাসেক্সের ব্যর্থতার দিনেও প্রংশসা কুড়িয়ে নেয় চেতেশ্বরের হার না মানা মানসিকতা।

ক্যাপ্টেন লড়াই চালালেন একেবারে সামনে থেকে। গোটা দল যখন ব্যর্থ, মাথা নোয়ালেন না চেতেশ্বর পূজারা। যদিও চোয়ালচাপা লড়াই চালিয়েও দলের হার বাঁচাতে পারেননি টিম ইন্ডিয়ার তারকা ক্রিকেটার। কাউন্টিতে নটিংহ্যামশায়ারের কাছে সাসেক্স কার্যত একতরফাভাবেই পরাজিত হয়। তবে প্রশংসা কুড়িয়ে নেয় চেতেশ্বরের হার না মানা মানসিকতা।

ম্যাচের দুই ইনিংসেই অল্পের জন্য ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরির হাতছাড়া করেন পূজারা। প্রথম ইনিংসে তিনি আউট হয়ে বসেন ৪৯ রানের মাথায়। ৮৫ বলের ইনিংসে ৯টি চার মারেন তিনি। দ্বিতীয় ইনিংসে সঙ্গীর অভাবে পূজারাকে অপরাজিত থাকতে হয় ৪৬ রানে। এবার ৭৫ বলের ইনিংসে ৭টি বাউন্ডারি মারেন ভারতীয় তারকা। এই ম্যাচেই পূজারা চলতি কাউন্টি মরশুমে ১০০০ রানের গণ্ডি টপকে যান।

নটিংহ্যামকে প্রথম ইনিংসে ২৪০ রানে আটকে রাখে সাসেক্স। তবে পালটা ব্যাট করতে নেমে তারা মাত্র ১৪৩ রানে অল-আউট হয়ে যায়। প্রথম ইনিংসের নিরিখে ৯৭ রানে পিছিয়ে পড়ে সাসেক্স।

আরও পড়ুন:- সচিনকে চোখ রাঙিয়ে কী ফল হয়, হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছিলেন দিন্দা, এমন শিক্ষা দিয়েছিলেন তেন্ডুলকর, যা ভোলা মুশকিল

নটিংহ্যামশায়ার দ্বিতীয় ইনিংসে ৩০১ রানে অল-আউট হয়। হাসিব হামিদ ৯৪, লিন্ডন জেমস ৫৪, স্টিভেন মুলানি ৪২, লিয়াম প্যাটারসন-হোয়াইট ৩২ ও জেমস প্য়াটিনসন ৩১ রান করেন। ৫টি উইকেট নেন ওলি রবিনসন।

প্রথম ইনিংসের খামতি মিলিয়ে জয়ের জন্য সাসেক্সের সামনে লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ৩৯৯ রানের। শেষ ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে সাসেক্স ১৪২ রানে গুটিয়ে যায়। ২৫৬ রানের বড় ব্যবধানে ম্যাচ জেতে নটিংহ্যামশায়ার। ব্যর্থ হয় পূজারার একক লড়াই।

আরও পড়ুন:- বিন্দ্রাকে অলিম্পিক্সে সোনা জিততে সাহায্য করেছিলেন দ্রাবিড়, টিম ইন্ডিয়ার হেড কোচকে এতদিনে ধন্যবাদ জানালেন অভিনব

চলতি কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে সাসেক্সের হয়ে পূজারার পারফর্ম্যান্স:-
১. ডার্বিশায়ারের বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে ৬ ও দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ২০১ রান করেন।
২. ওরচেস্টারশায়ারের বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে ১০৯ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ১২ রান করেন।
৩. ডারহ্যামের বিরুদ্ধে একটি মাত্র ইনিংসে ২০৩ রান করেন।
৪. মিডলসেক্সের বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে ১৬ ও দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ১৭০ রান করেন।
৫. লেস্টারশায়ারের বিরুদ্ধে একমাত্র ইনিংসে ৩ রান করেন।
৬. লেস্টারশায়ারের বিরুদ্ধে একমাত্র ইনিংসে ৪৬ রান করেন।
৭. মিডলসেক্সের বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে ২৩১ ও দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ২ রান করেন।
৮. নটিংহ্যামশায়ারের বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে ৪৯ ও দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ৪৬ রান করেন।

সব মিলিয়ে কাউন্টির ৮ ম্যাচের ১৩টি ইনিংসে ১০৯.৪০ গড়ে ১০৯৪ রান সংগ্রহ করেন পূজারা। সেঞ্চুরি করেন ৫টি, যার মধ্যে তিনবার দ্বিশতরানের গণ্ডি টপকে যান তিনি।

বন্ধ করুন