বাংলা নিউজ > ময়দান > শাহিনের দলে না থাকা, আর বুমরাহর না থাকার মধ্যে অনেক তফাৎ- দাবি পাক প্রাক্তনীর

শাহিনের দলে না থাকা, আর বুমরাহর না থাকার মধ্যে অনেক তফাৎ- দাবি পাক প্রাক্তনীর

শাহিন আফ্রিদি এবং জসপ্রীত বুমরাহ।

পাকিস্তান দলের সঙ্গে নেদারল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন শাহিন। সম্প্রতি পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম বলেছিলেন যে, দলের ডাক্তার এবং ফিজিও ফাস্ট বোলারের যত্ন নিচ্ছেন এবং তিনি খেলবেন কি না, সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে টিম ম্যানেজমেন্ট। এশিয়া কাপেও অনিশ্চিত আফ্রিদি।

গত সপ্তাহে এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের জন্য দল ঘোষণা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। ফাস্ট বোলার শাহিন আফ্রিদিকেও রাখা হয়েছে সেই দলে। তবে তাঁর চোট রয়েছে। এবং তিনি এশিয়া কাপে এখনও অনিশ্চিত। চলতি মাসের শুরুতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হাঁটুতে চোট পান শাহিন। তিনি এখনও ফিট নন।

এ দিকে ২৭ অগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে এশিয়া কাপ। ২৮ অগস্ট দুবাইতে ভারতের বিপক্ষে অভিযান শুরু করবে পাকিস্তান টিম।

আরও পড়ুন: Asia Cup-এ ভারতের বিরুদ্ধে কি ৩-০ করতে পারবে পাকিস্তান? অপ্রত্যাশিত উত্তর বাবরের

তবে পাকিস্তান দলের সঙ্গে নেদারল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন শাহিন। সম্প্রতি পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম বলেছিলেন যে, দলের ডাক্তার এবং ফিজিও ফাস্ট বোলারের যত্ন নিচ্ছেন এবং তিনি খেলবেন কি না, সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে টিম ম্যানেজমেন্ট। এখন পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক সলমান বাট এই বিষয়ে নিজের মতামত দিয়েছেন এবং বলেছেন যে, ভারতের বিপক্ষে বা এশিয়া কাপে শাহিনের অনুপস্থিতি পাকিস্তানের জন্য সমস্যা তৈরি করতে পারে।

বাট বলেন, শাহিনকে বিশ্রাম দেওয়ার জন্য তিনি বারবার পিসিবির কাছে আবেদন করছেন, কিন্তু কেউ তাঁর কথা শোনেনি। বাট তাঁর ইউটিউব চ্যানেলে বলেছেন, ‘শাহিন ছাড়া পাকিস্তানের বোলিং আক্রমণ দর্শনীয় এবং কার্যকর হবে না। তবে তরুণ ফাস্ট বোলারদের জন্য এটি দারুণ সুযোগ। নাসিম শাহ এবং শাহনওয়াজ দাহানি প্রমাণ করার সুযোগ পাবেন যে তাঁরাও দায়িত্ব নিতে পারেন। আমি সব সময় শাহিনের কাঁধ থেকে বোঝা নামানোর কথা বলেছি এবং ওঁকে সব জায়গায় না খেলানোর জন্য আবেদন করেছি, কিন্তু সেটা করা হয়নি।’

আরও পড়ুন: রান করা নিয়ে ভাবেননি- নতুন ধারায় কোহলির মানিয়ে নেওয়া প্রসঙ্গে ভারতের প্রাক্তনী

বাট আরও বলেছেন, ‘শাহিনকে প্রতিটি ম্যাচেই খেলানো হয়েছে। যার ফলে এখন চোটের কবলে পড়েছেন। তিনি এশিয়া কাপ না খেললে পাকিস্তানের তরুণ ফাস্ট বোলারদের জন্য দারুণ সুযোগ হবে। তরুণ ফাস্ট বোলাররা যদি পারফরম্যান্স করতে ব্যর্থ হন, তা হলে পিসিবি-তে অবশ্যই প্রশ্ন উঠবে, কেন তাদের প্রথম থেকে সুযোগ দেওয়া হয়নি। কেন প্রতি ম্যাচে শাহিনকে খেলানো হয়ে থাকে। তবে তরুণ খেলোয়াড়দের জন্য এটা দারুণ সুযোগ।’

বাট পাকিস্তানের তারকা বোলারের চোটের পরিস্থিতির সঙ্গে ভারতের জসপ্রীত বুমরাহের চোটের তুলনা টেনেছেন। আসলে পিঠের চোটের কারণে বুমরাহ এশিয়া কাপে খেলতে পারবেন না। সলমন বাটের দাবি, বুমরাহের অনুপস্থিতি ভারতের জন্য খুব বেশি পার্থক্য করবে না। কারণ দল প্রতিটি সিরিজে, প্রতিটি ম্যাচে নতুন ফাস্ট বোলারদের সুযোগ দিয়ে থাকে। এমতাবস্থায় তাঁদের হয়তো পাকিস্তানের মতো সমস্যায় পড়তে হবে না।

বাটের মতে, ‘ভারতীয় দল প্রতি ম্যাচেই নতুন বোলারদের সুযোগ দিচ্ছে। এটাও সত্যি যে বুমরাহর মতো আর কোনও বোলার নেই। বুমরাহ ভারতের সেরা বোলার এবং বিশ্বের সেরা বোলার। এটা একটু পার্থক্য করবে। তবে, টিম ইন্ডিয়া সেই পরিস্থিতিতে নেই যে, সবটা বুমরাহর উপর ছেড়ে দিতে হবে। সম্প্রতি ভারতীয় দলে অনেক নতুন বোলারের আবির্ভাব ঘটেছে। তবে পাকিস্তানের ক্ষেত্রে সেটা প্রযোজ্য নয়।’

বন্ধ করুন