বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > ISL 2022-23: প্রথম ছয় বিদেশিকে একসঙ্গে পাব- MCFC-র বিরুদ্ধে নামার আগে আত্মবিশ্বাসী ATKMB কোচ

ISL 2022-23: প্রথম ছয় বিদেশিকে একসঙ্গে পাব- MCFC-র বিরুদ্ধে নামার আগে আত্মবিশ্বাসী ATKMB কোচ

জুয়ান ফেরান্দো।

আইএসএলে মোহনবাগান এবং মুম্বই দুই দল মুখোমুখি হয়েছে মোট ছ’বার। তার মধ্যে চার বার জিতেছে মুম্বই সিটি এফসি। দু’বার ড্র হয়েছে। এর বাইরে গত অগস্টে ডুরান্ড কাপে দুই দল মুখোমুখি হলে, সেই ফলও ১-১ হয়। মোদ্দা কথা, মোহনবাগানের বিরুদ্ধে মুম্বই এখনও পর্যন্ত অপ্রতিরোধ্য।

দুরন্ত গতিতে এগিয়ে চলা মুম্বই সিটি এফসি-র বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত একটিও জয় না পাওয়া এটিকে মোহনবাগান শনিবার ঘরের মাঠে পরিসংখ্যান বদলাতে পারবে? এই প্রশ্ন নিয়ে যখন জোর জল্পনা চলছে সবুজ-মেরুন সমর্থকদের মধ্যে, তখন তাদের স্প্যানিশ কোচ জুয়ান ফেরান্দো আশ্বাস দিলেন, তা সম্ভব। তবে তার জন্য নিজেদের ভুলগুলো শুধরে নিয়ে সেরাটা নিংড়ে দিতে হবে তাঁর দলকে।

যে দল টানা আটটি ম্যাচ জিতে আইএসএলের নতুন নজির গড়েছে, ৪০ গোল করে যারা নিজেদের রেকর্ডই ভেঙে চুরমার করে দিয়েছে, এক-একটি ম্যাচে যারা অনায়াসে তিন-চার এমন কী ছ’গোলও করে দিচ্ছে, শনিবার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে সেই মুম্বই সিটি এফসি-র বিরুদ্ধে নামার আগে ফেরান্দোকে অবশ্য বেশ আত্মবিশ্বাসী মনে হয়েছে।

তার অবশ্য কারণও আছে। দু’সপ্তাহেরও বেশি ছুটিতে দলের চোট-সমস্যাগুলির বেশির ভাগই সমাধান হয়ে গিয়েছে। নতুন দুই বিদেশিকেও পেয়ে গিয়েছে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। এই প্রথম ছয় বিদেশিকে দলে রেখে মাঠে নামতে পারবে এটিকে মোহনবাগান। দলে যে জায়গায় ভুল হচ্ছিল, এই দুই সপ্তাহের অবকাশে সেগুলিও অনেকটা মেরামত করার সুযোগ পেয়েছে মোহনবাগান। আর সে কারণেই সম্ভবত কিছুটা নিশ্চিন্ত ফেরান্দো।

আরও পড়ুন: ফের ট্রান্সফার ব্যানের কবলে ইস্টবেঙ্গল, নতুন ফুটবলার সই করানো নিয়ে জটিলতা

শুক্রবার বিকেলে ক্লাবতাঁবুতে নয়া বিদেশি ফেদরিকো গালেগোকে পাশে বসিয়ে কোচ বললেন, ‘আমাদের জেতার সুযোগ অবশ্যই আছে। সেই জন্য আমাদের সুযোগ তৈরি করতে হবে। এখনও পর্যন্ত যত গোল খেয়েছি আমরা, তার ১৫ শতাংশ নিজেদের ভুলের জন্য। একই ভুল বারবার করেও গোল খেয়েছি। তবে এখন আশা করি আর সেই ভুলগুলো হবে না। কারণ, আমরা এই ভুল শুধরে নেওয়ার জন্য অনেক প্রস্তুতি নিয়েছি। বিপক্ষের খেলোয়াড়দেরও ভাল করে জেনে গিয়েছি। এই ক’দিন চোট আঘাত নিয়েই বেশি সময় কেটেছে আমাদের। তবে নতুন বছরটা ভালো ভাবে শুরু করতে চাই। দলে এখন আগের চেয়ে বেশি ভারসাম্য আছে।’

আরও পড়ুন: অলৌকিক কিছু না ঘটলে সেরা ছয়ে থাকা যাবে না- ওড়িশার কাছে হেরে মেনে নিলেন EB কোচ

নিজের দল নিয়ে অনেক দিন পরে কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে দেখা গেল কোচকে। ফেরান্দো বলছিলেন, ‘গত দু'মাসে আমরা খুব কঠিন অবস্থার মধ্যে দিয়ে গিয়েছি। আমাদের অনুশীলন করার মতো পুরো দল ছিল না। বেশির ভাগেরই চোট ছিল। এখন আগের চেয়ে ভালো অবস্থায় আছি। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচে আমরা স্কোয়াডে ছ’জন বিদেশিকে একসঙ্গে রাখতে পারব, যা এর আগে কখনও হয়নি। কেউ না কেউ ঠিক চোট পেয়ে বসে থেকেছে। দলের পক্ষে এটা ভালো। তিন মাস পরে গত দু’সপ্তাহে আমরা প্রথম ২০ জন খেলোয়াড়কে নিয়ে প্রস্তুতি সারতে পেরেছি। আশা করি, পরের আটটি ম্যাচে আর কোনও বড় চোট আমাদের কেউ পাবে না। প্রতি ম্যাচে তিন পয়েন্ট পাওয়ার জন্য ঝাঁপাব।’

এমনকী ফেরান্দোর গলায় লিগ টেবলে এক নম্বরে থেকে লিগ-শিল্ড জয়ের সম্ভাবনার কথাও শোনা যাচ্ছে, ‘খুবই আশায় আছি লিগশিল্ড পাওয়ার ব্যাপার। কেন সম্ভব নয়? তবে এই মুহূর্তে তা সম্ভব নয়। সেই জন্য আমাদের সব ম্যাচে জিততে হবে। আমাদের শেষ আটটি ম্যাচে ফোকাস করতে হবে। ফিট থাকতে হবে।’

তবে এখনও পুরো স্কোয়াড পাচ্ছেন না ফেরান্দো। নিজেই সে কথা জানিয়ে বলেন, ‘না পুরো স্কোয়াড এখনও পাব না। দীপক টাংরি পুরো মরশুমের জন্য ছিটকে গিয়েছে। মনবীর সিংয়ের সমস্যাও এখনও মেটেনি। একটা ভালো খবর হল, এই প্রথম আমি দলের সব বিদেশিদের একসঙ্গে পাচ্ছি অনুশীলনে। এ রকম গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের চোট থাকলে দলের সমস্যা হয়। তবু ঘরের মাঠে কাল আমরা ভাল খেলতে চাই।’

বন্ধ করুন