বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ISL Final: ‘ফাইনাল খেলা সবথেকে সহজ’, কেরালার কোচের এমন মন্তব্যের কারণটা কী?
ফাইনালের আগের দিন সাংবাদিক সম্মেলনের আগে কেরালা ব্লাস্টার্স কোচ ভুকোমানোভিচ। ছবি- আইএসএল।

ISL Final: ‘ফাইনাল খেলা সবথেকে সহজ’, কেরালার কোচের এমন মন্তব্যের কারণটা কী?

  • ছয় মরশুম পর আবার আইএসএল ফাইনালে পৌঁছেছে কেরালা ব্লাস্টার্স।

আইএসএলের ইতিহাসের সবথেকে ধারাবাহিক দলগুলির মধ্যে অন্যতম হল কেরালা ব্লাস্টার্স। তবে একাধিকবার ফাইনালে পৌঁছেও খেতাব জয় অধরাই রয়ে গিয়েছে। এবার ছয় বছর পর নিজেদের তৃতীয় ফাইনালে মাঠে নামছে দক্ষিণ ভারতের দলটি। অতীতের হতাশা পিছনে ফেলে নতুন ইতিহাস রচনায় বদ্ধপরিকর কোচ ইভান ভুকোমানোভিচ।

ফাইনালে মাঠে নামার আগে সাংবাদিক সম্মেলনে সার্বিয়ান কোচ বলেন, ‘অতীতের সব হতাশা থেকে শিক্ষা নিয়েই আমরা পূর্ণ শক্তিতে এ বছর মাঠে নেমেছিলাম, যার ফলেই দল সাফল্য পেয়েছে। দলের ফুটবলাররা প্রথম দিন থেকেই নিজেদের সর্বস্বটা উজাড় করে দিয়ে কঠোর পরিশ্রম করেছে, যার কারণেই আজ আমরা এখানে পৌঁছতে পেরেছি। আমার মতে এতদিন পরে এমন সাফল্য পাওয়াটা ক্লাবের একটা দারুণ কৃতিত্ব এবং খেতাব জিতে দারুণভাবেই আমরা এই সফরটা শেষ করতে চাই।’

দুই বছরে প্রথমবার দর্শকভর্তি মাঠে ফতোরদায় হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ফাইনালে কেরালা। মাঠে কেরালা সমর্থকরা যে প্রচুর পরিমাণে ভিড় জমাবেন, তা স্বাভাবিক। দর্শকদের ছাড়া খেলাটা যে খুবই অদ্ভুত ছিল, তা মেনে নিচ্ছেন ইভান। তবে দর্শকদের উপস্থিতিতে খেলা মানে তো বাড়তি চাপ। তার ওপর আবার অতীতের খারাপ রেকর্ড ও দর্শকদের আশা। এগুলোকে পাত্তা না দিয়ে বরং সম্পূর্ণ ভিন্ন এক থিওরিতে বিশ্বাসী কেরালা কোচ। তাঁর মতে ফাইনালের থেকে সহজ ম্যাচ আর কিছু হয় না।  

‘প্রাক্তন খেলোয়াড় এবং কোচ হিসাবে আমার মতে এগুলোর (ফাইনাল) সবথেকে সহজ ম্যাচ। কারণ এই ম্যাচে মাঠে নামার জন্য বাড়তি অনুপ্রেরণার প্রয়োজন হয়না। এমনই সকলে এই ম্যাচে মাঠে নামার জন্য প্রস্তুত থাকে। সুতরাং, এতদিন ধরে আমরা যা করে এসেছি, যেমনভাবে প্রস্তুতি নিয়েছি, ফাইনালের আগে সেই কথাগুলোই মনে করিয়ে দিতে হয়। হ্যাঁ, টুকটাক আলাদা বিষয়ে তো আলোচনা করতে হয়ই। তবে আবারও বলব, বড় বড় ফাইনালে দর্শকদের উপস্থিতিতে খেলাটা সবথেকে সোজা।’ দাবি ইভানের।

আর ফাইনালের প্রতিপক্ষ হায়দরাবাদ এফসি, ম্যানুয়েল মার্কেজের দলের বিষয়ে কী মত ইভানের? ‘আমরা দুই দলই একে অপরকে ভালভাবে চিনি। এর আগেও তো এ মরশুমে দুইবার মুখোমুখি হয়েছি আমরা। রবিবার দিন আমার মতে কোনও তারকার বাড়তি দক্ষতা বা এবং বাড়তি অনুপ্রেরণাই ম্যাচে পার্থক্য গড়ে দেবে। ম্যাচের জন্য আমরা ভালভাবে প্রস্তুতি নিয়েছি। আশা করছি কাল আমার দলের ছেলেরা চাপমুক্ত হয়ে ফাইনালটা উপভোগ করবে এবং নিজেদের সেরাটা দিতে পারবে। আশা করছি ম্যাচে কড়া ট্যাকেল থেকে শুরু করে আক্রমণ ও রক্ষণের সুন্দর পরিকল্পনা, সবটাই দেখা যাবে।’ বলেন কেরালা কোচ ইভান।

বন্ধ করুন