বাংলা নিউজ > ময়দান > হাল ছেড়ো না বন্ধু, জাতীয় দলে ফেরার আশায় বোল্যান্ডই অনুপ্রেরণা উনাদকাটের
জয়দেব উনাদকাট। ছবি- টুইটার।

হাল ছেড়ো না বন্ধু, জাতীয় দলে ফেরার আশায় বোল্যান্ডই অনুপ্রেরণা উনাদকাটের

  • ২০১৮ সালে ভারতীয় দলের জার্সি গায়ে শেষবার দেখা গিয়েছিল উনাদকাটকে। 

তৃতীয় অ্যাসেজ টেস্টে মেলবোর্নে ঘরের মাঠে স্বপ্নের অভিষেক ঘটিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান ফাস্ট বোলার স্কট বোল্যান্ড। অজি বোলারের স্বপ্নের শুরুতে, কামব্যাকের আশা দেখছেন এক ভারতীয় বোলারও। তিনি আর কেউ নন সৌরাষ্ট্র অধিনায়ক তথা প্রাক্তন রাজস্থান রয়্যালস তারকা জয়দেব উনাদকাট।

ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করলেও ২০১৮ সালের পর থেকে ভারতীয় দলের দরজা বন্ধই রয়েছে উনাদাকাটের জন্য। ২০১০ সালে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে নিজের একমাত্র টেস্ট ম্যাচ খেললেও, কোনো উইকেট পাননি তিনি। এই নিয়ে সময়ে সময়ে নিজের হতাশার কথাও প্রকাশ্যে জাহির করেছেন ৩০ বছর বয়সী বাঁ-হাতি ফাস্ট বোলার। সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার সফরেরই উদাহরণ দেওয়া যেতে পারে, যেখানে প্রায় দ্বিতীয় সারির ভারতীয় দল পাঠানো হলেও, উনাদকাটের নাম ছিল না তাতে। তবে আশাহত হতে নারাজ উনাদকাট নিজের পরিশ্রম চালিয়ে যাবেন বলেই সেই সময় জানান।

৩২ বছর বয়সী বোল্যান্ডের গল্পটাও অনেকটা উনাদকাটের মতোই। বহু বছর ধরে উপেক্ষিত হয়ে অবশেষে জোস হ্যাজেলউডের চোটের জেরে মেলবোর্নে সুযোগ পান তিনি। আর চার ওভারে সাত রান দিয়ে ছয় উইকেট তুলে নিয়ে প্রথম সুযোগেই ইতিহাস গড়ে ফেলেন। এর পরিপ্রেক্ষিতেই প্রখ্যাত ধারাভাষ্যকার হর্ষ ভোগলে সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখেন, ‘লড়াই চালু রাখ, টিকে থাক, কেউ জানে না কাল কী হতে চলেছে। স্কট বোল্যান্ড তো আমাদের এই সত্যিটাই আবার মনে করিয়ে দিলেন।’ 

উনাদাকাট সেই পোস্ট নিজে সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে শেয়ার করে,পোস্টের ক্যাপশনে লেখেন, ‘নিঃসন্দেহে।’ এই পোস্ট থেকে আর কিছুই না জাতীয় দলের জার্সি পুনরায় গায়ে চাপাতে উনাদকাট কতটা বদ্ধপরিকর, তারই উদাহরণ মেলে। হর্ষ ভোগলে নিজেও কিন্তু নিজেকে আরও ভাল করার উনাদকাটের এই লড়াই দেখতে মুখিয়ে রয়েছেন। উনাদকাটের পোস্টের জবাবে তিনি লেখেন, ‘আমি এর জন্যই অপেক্ষা করে আছি।’

বন্ধ করুন