বাংলা নিউজ > ময়দান > Sourav Ganguly Birthday: ২০০২ সালেই কেরিয়ার শেষ হয়ে যাবে, আশঙ্কায় ছিলেন সৌরভ
শতরানের পরে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (ছবি:টুইটার)
শতরানের পরে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (ছবি:টুইটার)

Sourav Ganguly Birthday: ২০০২ সালেই কেরিয়ার শেষ হয়ে যাবে, আশঙ্কায় ছিলেন সৌরভ

  • নিজের শেষ খেলার কথা ২০০২ সালেই জানিয়ে দিয়েছিলেন সৌরভ

কথায় আছে আহত বাঘ নাকি বেশি ভয়ঙ্কর। জঙ্গলে সেই দৃশ্য অনেকেই হয়তো দেখেছেন, কিন্তু বাইশ গজে যারা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে খেলেছেন, তাঁরা প্রত্যেকেই জানেন সেই কথাটা। কারণ বাইশ গজের যখনই দেওয়া পিঠ ঠেকেছে তখনই নিজের আসল রূপ দেখিয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। সেই কারণে মহারাজকে বেঙ্গল টাইগার বলা হয়ে থাকে।

তবে যারা বাইশ গজে সৌরভের সঙ্গে সাজঘর ভাগ করতেন। যারা ভারতীয় দলে সৌরভের সহ্গে ছিলেন তাঁদের ঝুলিতে মহারাজকে নিয়ে প্রচুর গল্প রয়েছে। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ৪৯তম জন্মদিনে তেমনই এক ঘটনার কথা জানান ভারতের প্রাক্তন অধিনায়কের সতীর্থ দীপ দাশগুপ্ত। তিনি জানালেন ২০০২ সালের এক ঘটনা, যখন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় তাঁকে বলেছিলেন জিম্বাবোয়ে ম্যাচই তাঁর শেষ ম্যাচ। তারপর কী হল সেটাই শোনালেন দীপ।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে দীপ দাশগুপ্ত জানান, ‘আমি দাদার (সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়) মত মানসিকভাবে দৃঢ় আর কাউকে দেখিনি। জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামার আগে তিনি আমায় বলেছিলেন, ‘এটা সম্ভবত আমার শেষ খেলা।’ আমি এটা বিশ্বাস করতে পারিনি যে উনি কী বলছেন। কিন্তু তিনি পরের দিন মাঠে নামলেন এবং শতরান করলেন। এটাই প্রমাণ করে যে তিনি মানসিক ভাবে তিনি কতটা শক্তিশালী।’  

ভারতের প্রাক্তন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান দীপ দাশগুপ্ত আরও জানান, ‘আজ ভারতীয় দল যেই জায়গায় দাঁড়িয়ে রয়েছে, তার অনেকাংশের জন্য কৃতিত্ব সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। তিনি লক্ষ লক্ষ মানুষের কাছে একটি অনুপ্রেরণা।’

বন্ধ করুন