বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘বল বিকৃতিতে অপরাধটা কোথায়?’ সকলকে চমকে দিয়েই চাঞ্চল্যকর দাবি অজি কিংবদন্তির
অ্যালান বর্ডার এবং ডেভিড ওয়ার্নার।

‘বল বিকৃতিতে অপরাধটা কোথায়?’ সকলকে চমকে দিয়েই চাঞ্চল্যকর দাবি অজি কিংবদন্তির

  • বল বিকৃতির অভিযোগে ওয়ার্নারের বড় শাস্তি হয়েছে। তিনি আর কখনও অস্ট্রেলিয়াকে নেতৃত্ব দিতে পারবেন না। তবে বর্ডার এই শাস্তি মানেন না। বরং তাঁর দাবি, ওয়ার্নারকে দেওয়া এই শাস্তি প্রত্যাহার করে নেওয়া উচিত।

সকলকে চমকে দিয়ে ক্রিকেটে বল বিকৃতির পক্ষেই জোর সাওয়াল করলেন প্রাক্তন অজি অধিনায়ক অ্যালান বর্ডারের। তিনি দাবি করেছেন, স্বাভাবিক পদ্ধতিতে বল বিকৃত করলে, তাতে নাকি কোনও অন্যায় নেই। নিজে ব্যাটার হয়েও বোলারদের সাহায্যে বল বিকৃতির মধ্যে কোনও অপরাধ আচে বলে মনে করেন না বর্ডার। তাঁর এমন দাবির কথা শুনে ক্রিকেট মহলে উঠে গিয়েছে নতুন ঝড়।

আরও পড়ুন: গুজরাটিতে অক্ষর-রোহিতের ব্রোম্যান্স, জাদেজা কি চাপে পড়বেন?

প্রসঙ্গত, বল বিকৃতির অভিযোগে ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথের শাস্তি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে বর্ডার দাবি করেছেন, ‘পাটা উইকেটে বোলারদের সাহায্য করার জন্য স্বাভাবিক পদ্ধতিতে বলের বিকৃতি করতেই হয়।’ রিভার্স সুইংয়ের প্রসঙ্গে টেনে তিনি আরও যোগ করেছেন, ‘রিভার্স সুইং একটা বড় অস্ত্র। পাটা উইকেটে রিভার্স সুইংয়ে এখনও অনেক ব্যাটার আউট হয়। বিষয়টি নিয়ে ভাবার আছে। বল হাতে নিয়ে স্বাভাবিক আঁচড় কাটলেও একটা সময় পর রিভার্স সুইং করতে শুরু করে। এর মধ্যে ভুল কী আছে?’

এখানেই থামেননি কিংবদন্তি ক্রিকেটার। তিনি আরও বলেছেন, ‘একদম পাটা উইকেটেও তো বোলারদের কিছু সাহায্য দরকার। না হলে রান ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে যাবে। এখন তো সেটাই ঘটছে। নয়তো আমাদের এমন উইকেট তৈরি করা দরকার, যেখানে ফলাফল হবে। সম্পূর্ণ পাটা উইকেটে ভালো ব্যাটারদের আউট করা প্রায় অসম্ভব হয়ে যায়।’

আরও পড়ুন: চাপের পরিস্থিতিতে ঠিক কী করেন দ্রাবিড়, ফাঁস করলেন শ্রেয়স

বল বিকৃতির অভিযোগে ওয়ার্নারের বড় শাস্তি হয়েছে। তিনি আর কখনও অস্ট্রেলিয়াকে নেতৃত্ব দিতে পারবেন না। তবে বর্ডার এই শাস্তি মানেন না। বরং তাঁর দাবি, ওয়ার্নারকে দেওয়া এই শাস্তি প্রত্যাহার করে নেওয়া উচিত।

বর্ডারের দাবি, ‘ওয়ার্নারকে অত্যন্ত কঠিন শাস্তি দেওয়া হয়েছে। অনেক দিন ধরে শাস্তি বয়ে বেড়াচ্ছে। আমরা বল বিকৃত করতে গিয়ে ধরা পড়েছি। আমি জানি, বিশ্বের সব দলই বল বিকৃত করে। এমন একজনও অধিনায়ক রয়েছেন, যিনি বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবেন, কখনও এমন কোনও কাজ করেননি। যদি কেউ বলেন, তা হলে বলব সে ডাহা মিথ্যে বলছেন। যাঁদের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে, তাঁরা নিশ্চিত ভাবেই ওই অপরাধের মাথা ছিল। কিন্তু ক্রিকেটে সর্বত্রই এমন ঘটনা ঘটে।’

বন্ধ করুন