বাড়ি > দেখতেই হবে > ঘরে বাইরে > ছেলের বউয়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে নেপাল সীমান্তে আটক ব্যক্তি, হিংসায় বলি এক

ছেলের বউয়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে নেপাল সীমান্তে আটক ব্যক্তি, হিংসায় বলি এক

নিজের ছেলের বউয়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে নেপাল সীমান্তে আটক হলেন এক ব্যক্তি।তাঁকে ছাড়াতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে মারা গেলেন একজন, আহত চার। অবিশ্বাস্য মনে হলেও শুক্রবার এমনই ঘটনার সাক্ষী থাকল বিহারের সীতামারহি জেলা।

নেপালের Armed Police Force (APF) এর গুলিতে প্রাণ হারালেন এক নিরীহ ভারতীয়। নেপালের সারলাহি জেলায় গুলি চলানোর ঘটনা হয়। বিহারের অতিরিক্ত ডিজিপি হতাহতের সত্যতা স্বীকার করেছেন। স্থানীয়রা জানিয়েছেন যে গুলিতে আহত হয়ে মারা গিয়েছেন ২৫ বছরের বিকেশ কুমার রাই। বুলেটে আহত হয়েছেন দুই তরুণ উমেশ রাম ও উদয় ঠাকুর। আরেক আহত ব্যক্তি লগন যাদবকে নেপালি পুলিশ আটক করেছে। চতুর্থ আহতের পরিচয় মেলেনি। 

Seema Sashatra Bal (SSB) এর ডিজি রাজেশ চন্দ্র জানান যে নেপালের ভেতর দেড় কিলোমিটার দূরে এই ঘটনা হয়েছে। স্থানীয় ইস্যু থেকে ঝগড়া বলে তিনি জানান। ইতিমধ্যেই নেপাল পুলিশের সঙ্গে তারা যোগাযোগ করেছেন বলে জানান রাজেশ। 

পুলিশ সূত্রের খবর, লগন যাদবের পুত্রবধূ ওখানে কিছু ভারতীয়দের সঙ্গে কথা বলছিলেন। পুত্রবধূ নেপালি নাগরিক। এতেই নেপালি পুলিশের গাত্রদাহ হয়। তারা ওখানে গিয়ে লগনকে মারেন। প্রতিবাদ করতে তখন ভারত সীমান্ত থেকে গ্রামবাসীরা সেখানে যান. তখন ১৭ রাউন্ড গুলি নেপাল পুলিশ ছোঁড়ে বলে অভিযোগ। বিকেশের তলপেটে চোট লেগেছিল, অন্যরা পা'য় চোট পেয়েছেন। লগনকে ছাড়ানোর জন্য ইতিমধ্যেই তত্পর স্থানীয় প্রশাসন। 

অন্যদিকে নেপাল পুলিশের দাবি ভারতীয়রা তাদের আক্রমণ করেন তাই আত্মরক্ষায় গুলি চালাতে হয়। জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে আকাশে গুলি চালালে তাদের হাত থেকে বন্দুক ছিনিয়ে নেওয়া হয় বলে তাদের অভিযোগ। 

এর আগে ২৯ মে ও ১৭ মে সীমান্তে অশান্তি হয়েছে। কিন্তু এবার একেবারে একজনের প্রাণ চলে গেল এমন একটি সময় যখন নতুন করে সীমান্ত সমস্যা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে দুই দেশের মধ্যে। ভারতের তিনটি জায়গা নিজেদের বলে দাবি করে নয়া ম্যাপ আনছে নেপাল। 

জেডিইউ-র সীতামারহির সাংসদ সুনীল কুমার পিন্টু ঘটনার কড়া নিন্দা করেছেন। তিনি বলেন এই প্রথমবার নেপাল পুলিশ ভারতীয়দের ওপর গুলি চালানো। দুই দেশের মধ্যে আদানপ্রদান- যেটাকে স্থানীয় ভাষায় বলা হয় রোটি অওর বেটি-র সম্পর্ক, সেটা ক্ষতিগ্রস্ত হল বলে তিনি মনে করেন।