বাড়ি > দেখতেই হবে > ঘরে বাইরে > বন্যার তোড়ে রান্নাঘরে আশ্রয় নিল দুই বছরের বাঘিনী, উদ্ধার করে ছেড়ে দেওয়া হল জঙ্গলে

বন্যার তোড়ে রান্নাঘরে আশ্রয় নিল দুই বছরের বাঘিনী, উদ্ধার করে ছেড়ে দেওয়া হল জঙ্গলে

বন্যার তোড়ে চুপচাপ গ্রামে গিয়ে বসেছিল দুই বছরের বাঘিনী। প্রায় দুই দিন সেখানে বসে থাকার পরে বনদফতর ঘুমের ওষুধ দিয়ে বেঁহুশ করে বাঘিনীকে। অবশেষে শুক্রবার ফের কাজিরাঙ্গা ন্যাশনাল পার্ক  ও ব্যাঘ্র সংরক্ষণ কেন্দ্রে ছেড়ে দেওয়া হল এই শাবককে। সাময়িক ইতস্তত করে ফের বনে প্রবেশ করে গিয়েছে বাঘিনী। 

অসমে ভয়াল বন্যায় ভেসে গিয়েছে কাজিরঙ্গা জাতীয় উদ্যানও। বন্যার জলের হাত থেকে বাঁচার জন্য দুটি বাঘ নিজেদের লোকালয় ত্যাগ করেছিল। একটি পার্শ্ববর্তী কার্বি অ্যাংলং জেলায় চলে যায়। কিন্তু এই বাঘিনী পাশের একটি গ্রামে যায় ও সেখানে একটা কুঁড়ে ঘরের রান্নাঘরে রাত কাটায়। বুধবার দিনের আলো ফুটলেও বাঘিনীকে যায় নি। গ্যাঁট হয়ে বসেছিল সেখানে। বনদফতর ও পশু চিকিৎসকরা বুধবার দুপুুরে তাকে ঘুমের ওষুধ দেয়।  এরপর বাঘিনীকে Centre for Wildlife Research and Conservation (CWRC) নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে এটিকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। পুরো স্বাস্থ্যপরীক্ষা করা হয় বাঘিনীকে। দেখা যায় সে শারীরিক ভাবে সুস্থ। এরপর ঠিক করা হয় বাঘিনীকে তার পুরনো লোকালয়ে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। 

কাজিরাঙ্গায় মোট ১২১টি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার আছে। এখনও পার্কের প্রায় ৮৫ শতাংশ জলমগ্ন। এই বর্ষাকালে পাঁচটি রাইনো সহ ৮৬টি প্রাণী মারা গিয়েছে পার্কে।