বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'কিডনির অসুখে ভুগছেন', করোনা পরিস্থিতিতে সিবিআই দফতরে হাজিরা দিচ্ছেন না অনুব্রত
বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। ফাইল ছবি
বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। ফাইল ছবি

'কিডনির অসুখে ভুগছেন', করোনা পরিস্থিতিতে সিবিআই দফতরে হাজিরা দিচ্ছেন না অনুব্রত

সিবিআই সূত্রে খবর, অনুব্রত জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতিতে তিনি বাড়ি থেকে বেরোবেন না।তাই তাঁকে কিছুটা সময় দেওয়া হোক।

মঙ্গলবার সিবিআই দফতরে হাজিরা দিচ্ছেন না বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ও তাঁর সহযোগী। সিবিআই সূত্রে খবর, অনুব্রত জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতিতে তিনি বাড়ি থেকে বেরোবেন না। তাই তাঁকে কিছুটা সময় দেওয়া হোক। উল্লেখ্য, আগামী ২৯ এপ্রিল বীরভূমে ভোট। তার আগে গরুপাচারকাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অনুব্রত মণ্ডল ও তাঁর সহযোগীকে তলব করেছিল সিবিআই।

বীরভূমের জেলা সভাপতি সিবিআইকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছেন, তিনি কিডনির অসুখে ভুগছেন। তাই করোনা পরিস্থিতিতে তিনি বাড়ি থেকে বেরোতে পারবেন না। তাই তাঁকে আরও কিছুটা সময় দেওয়া হোক। একইসঙ্গে অনুব্রতের যে সহযোগীকে সিবিআই তলব করেছিল, তিনিও সিবিআইকে জানিয়েছেন, তাঁর পরিবারের কয়েকজন করোনা আক্রান্ত। তাই তিনি হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।এখনই সিবিআই দফতরে আসতে পারছেন না। সিবিআই সূত্রে খবর, গরুপাচারকাণ্ডে সাক্ষীদের বয়ানে অনুব্রতের নাম উঠে আসে। সেজন্য অনুব্রতকে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন। সিবিআইয়ের দাবি, বীরভূম থেকেও গরু পাচার হতো।বীরভূমে গরুর হাটেরও আয়োজন করত গরুপাচারকারীরা।

ইতিমধ্যে ভোটের মুখে সিবিআইয়ের অনুব্রতকে তলব করা নিয়ে রাজনৈতিক অভিসন্ধির গন্ধ পাচ্ছে তৃণমূল। তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্টত বলেন, '২৯ এপ্রিল ভোট।তাই তলব করা হয়েছে। অনুব্রতকে সিবিআই দফতরে যেতে নিষেধ করেছি।'এর আগে, গত শুক্রবার হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি থাকার অভিযোগে অনুব্রত মণ্ডল ও তাঁর চার আত্মীয়কে নোটিশ দেয় আয়কর বিভাগ। ১০ দিনের মধ্যে তাঁদের কাছ থেকে জবাব চাওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন