বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দু'মিনিটে ১৩টি মন্ত্র পাঠ, ইন্ডিয়া বুকে রেকর্ড গড়ল কেজি ওয়ানের আরুহী
ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ড ২০২১—এ স্থান পেল আরুহী চন্দ্র। নিজস্ব চিত্র
ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ড ২০২১—এ স্থান পেল আরুহী চন্দ্র। নিজস্ব চিত্র

দু'মিনিটে ১৩টি মন্ত্র পাঠ, ইন্ডিয়া বুকে রেকর্ড গড়ল কেজি ওয়ানের আরুহী

মাত্র ২ মিনিট ১৩ সেকেন্ডে হিন্দু শাস্ত্রের ১৩ টি কঠিন মন্ত্র অনর্গল উচ্চারণ করে রেকর্ড গড়ল এই একরত্তি।

‘‌ছোট মুখে বড় কথা’‌। এই আপ্তবাক্যটি বাস্তবায়িত করেছে মুর্শিদাবাদের ছোট্ট পড়ুয়া আরুহী। মাত্র ২ মিনিট ১৩ সেকেন্ডে হিন্দু শাস্ত্রের ১৩ টি কঠিন মন্ত্র অনর্গল উচ্চারণ করে রেকর্ড গড়ল এই একরত্তি।

এত কম সময়ের মধ্যে হিন্দু শাস্ত্রের ১৩ টি মন্ত্র পাঠ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ড ২০২১—এ নাম নথিভুক্ত করেছে বহরমপুরের এই শিশুকন্যা। মেয়ের স্বল্প সময়ের মধ্যে এই রেকর্ডে উচ্ছসিত তার পরিবার ও প্রতিবেশীরা।

মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের জজ কোর্ট এলাকার বাসিন্দা পাপান চন্দ্র ও সুতপা চন্দ্র। তাঁদের মেয়ে আরুহী। আরুহীর পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, তাঁদের মেয়ে স্থানীয় একটি প্রাথমিক স্কুলের কেজি ওয়ানের ছাত্রী। আরুহীর মা সুতপাদেবী পেশায় একজন স্কুল শিক্ষিকা। তিনি জানান, গত দু’‌বছর ধরে চলা লকডাউনের জেরে স্কুল বন্ধ আরুহীর। ছোটোবেলা থেকেই নাচ—গানে ঝোঁক রয়েছে তার। আঁকতে খুব ভালোবাসে। খাবারের তালিকায় মাছ খুব পছন্দ ওর। এমনকী ফেসবুকে প্রচুর ভিডিয়ো শেয়ার করে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে তাঁদের মেয়ে।

সুতপা আরও জানিয়েছেন, অনলাইনের মাধ্যমে তাঁরা ইন্ডিয়া বুক রেকর্ড কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। সেখানেই রেকর্ড সময়ের মধ্যে মন্ত্র পাঠ করে সফল হয়েছে আরুহী। ইন্ডিয়া বুক রেকর্ড কর্তৃপক্ষও আরুহীর জন্যে নানা ধরনের পুরস্কার পাঠিয়েছে।

এই অসাধ্য সাধন যে করেছে সেই ছোট্ট আরুহী কী বলছে?‌ তার বক্তব্য, ‘‌আমি আঁকতে খুব ভালোবাসি। বড় হয়ে চিকিৎসক হতে চাই।’‌ সবশেষে তার দাদু জানালেন, পরিবারের একমাত্র অক্সিজেন তাঁর নাতনি আরুহী।

বন্ধ করুন