বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌দিলীপদা বকেছেন, বড়রা শাসন করতেই পারেন',পৃথক রাঢ়বঙ্গের দাবির পর বললেন সৌমিত্র
সৌমিত্র খাঁ। ফাইল ছবি
সৌমিত্র খাঁ। ফাইল ছবি

‘‌দিলীপদা বকেছেন, বড়রা শাসন করতেই পারেন',পৃথক রাঢ়বঙ্গের দাবির পর বললেন সৌমিত্র

  • বিজেপি সাংসদের দাবি, তৃণমূলের আচরণের জন্য তিনি এই মন্তব্য করেছেন।

বিজেপি যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খাঁর মন্তব্যে যারপরনাই ক্ষুব্ধ বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। বারবার বিভিন্ন মন্তব্য করে যেভাবে দলকে তিনি অস্বস্তির মধ্যে ফেলছেন, সেটা মোটেও ভালো চোখে দেখছে না বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ থেকে শুরু করে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী, সকলেরই বক্তব্য, দলকে অস্বস্তিতে ফেলা বন্ধ করুন সৌমিত্র। যদিও বিজেপি সাংসদের দাবি, তৃণমূলের আচরণের জন্য তিনি এই মন্তব্য করেছেন। উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই বিজেপি সাংসদ জঙ্গলমহল রাজ্যের দাবি জানিয়েছিলেন, যা নিয়ে দলের মধ্যে প্রবল আপত্তি ওঠে।

বিজেপি সূত্রে খবর, মঙ্গলবার যুব মোর্চার ভার্চুয়াল বৈঠকে সৌমিত্রকে নিয়ে সরব হন অনেকেই। সৌমিত্র এখন বেশ কিছুদিন ধরেই দিল্লিতে আছেন। বৈঠকের শুরুতেই সৌমিত্রের খোঁজখবর নেন দিলীপ। বিজেপির রাজ্য সভাপতি অবশ্য স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, সৌমিত্রের এই ধরনের মন্তব্য দল কোনওভাবেই সমর্থন করে না। উল্টে দিলীপবাবুকে বলতে শোনা যায়, এবার কড়া হাতে শাসন করা দরকার। দল যখন বিভিন্ন ইস্যুতে রাজ্য সরকারের ওপর চাপ তৈরি করতে চাইছে, তখন নানা রকম অপ্রয়োজনীয় কথা বলে সৌমিত্র ইস্যু তুলে দিচ্ছে তৃণমূলের হাতে। রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব যে তাঁর ওপর রুষ্ট, সেকথা বিলক্ষণ জানেন সৌমিত্র। তাঁর কথায়, ‘‌আমায় দিলীপদা বকেছেন। বড়রা শাসন করতেই পারে। কিন্তু আমি দলকে অস্বস্তিতে ফেলতে চাইনি। ওটা যে আমার ব্যক্তিগত বক্তব্য ছিল, সেটাও আমি বলেছি। আসলে তৃণমূলের আচরণের জন্যই আমি এই বক্তব্য রেখেছি।’‌|#+|

এদিকে দল যখন সৌমিত্রের ওপর রুষ্ট, তখন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি সৌমিত্র খাঁ দেখা করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার সঙ্গে। এই প্রসঙ্গে খোলসা করে কিছু বলতে না চাইলেও বিজেপি সাংসদ জানান, বিভিন্ন রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে নাড্ডাজির সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। তবে এত কিছুর পরেও সৌমিত্র যে তাঁর নিজের অবস্থানেই অনড় রয়েছেন, তার প্রমাণ দিয়েছেন তিনি। ফেসবুক লাইভে সাংবিধান হাতে নিয়ে বোঝান, কীভাবে আলাদা রাজ্যের দাবি তোলা যায়। উল্লেখ্য, এর আগেও সৌমিত্রকে নিয়ে একাধিক বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। নির্বাচনের আগেই মুখ্যমন্ত্রীর মুখ হিসাবে দিলীপ ঘোষের নাম ঘোষণা করে দিয়েছিলেন সৌমিত্র, যা নিয়ে বিজেপির অন্দরে কম বিতর্ক হয়নি।

বন্ধ করুন