বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কাটআউট ছাপাতে হবে না, ভোটের আগে মানুষ তৃণমূল নেতাদের ঝুলিয়ে রাখবেন: দিলীপ ঘোষ
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  (PTI)
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  (PTI)

কাটআউট ছাপাতে হবে না, ভোটের আগে মানুষ তৃণমূল নেতাদের ঝুলিয়ে রাখবেন: দিলীপ ঘোষ

  • ময়নাগুড়ির বিধায়ক অনন্তদেব অধিকারীর সাংবাদিককে চড় মারার ঘটনা নিয়ে দিলীপবাবু বলেন, ‘এরকম ঘটনা ভাবাও যায় না। হারের ভয়ে বেচারার ব্রেক ফেল করেছে।’

কাটমানি ও অনুন্নয়ন নিয়ে ফের একবার তৃণমূলকে বিঁধলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বুধবার সকালে পুরুলিয়া শহরে চা চক্রে অংশগ্রহণ করে দিলীপবাবু রাজ্য সরকার ও শাসকদলকে একহাত নেন। সঙ্গে সাংবাদিককে চড় মারায় বিদ্রুপ করেন তৃণমূল বিধায়ক অনন্তদেব অধিকারীকেও। 

এদিন সকালে পুরুলিয়া শহরে প্রার্তর্ভ্রমণ সেরে দিলীপবাবু চা চক্রে অংশগ্রহণ করেন। সেখানে একের পর এক ইস্যুতে তৃণমূলকে বেঁধেন তিনি। কাটমানি ইস্যুতে রাজ্যের শাসকদলের নেতাদের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘ওদের সাধারণ মানুষ খুঁজে বেড়াচ্ছে। সামনে পেলেই ল্যাম্পপোস্টে বেঁধে পেটাবে। ভোটের আগে ওদের আর কাটআউট ছাপাতে হবে না। মানুষই ওদের টাঙিয়ে রাখবে।’

জঙ্গলমহলের অনুন্নয়নের জন্য তৃণমূলকে দায়ী করে দিলীপবাবু বলেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকার জঙ্গলমহলের জন্য রাজ্য সরকারকে টাকা দেয়। সেই টাকা কোথায় যায়?’

ময়নাগুড়ির বিধায়ক অনন্তদেব অধিকারীর সাংবাদিককে চড় মারার ঘটনা নিয়ে দিলীপবাবু বলেন, ‘এরকম ঘটনা ভাবাও যায় না। হারের ভয়ে বেচারার ব্রেক ফেল করেছে।’

লাইনে দাঁড়িয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নেওয়ারও সমালোচনা করেন তিনি। বলেন, ‘সাধারণ মানুষের সঙ্গে ওর দূরত্ব বেড়েছে তা বুঝতে পেরেছেন। তাই মানুষের ভিড়ে মেশার চেষ্টা করছেন।’

বন্ধ করুন