বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রাতে বাড়ির উঠোনে কামড়েছিল সাপ, সকালে হাসপাতালে মৃত্যু বধূর
কালাচ সাপ। 
কালাচ সাপ। 

রাতে বাড়ির উঠোনে কামড়েছিল সাপ, সকালে হাসপাতালে মৃত্যু বধূর

  • পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে মৃত বধূর নাম পম্পা দাস (৩০)। রবিবার রাত ১০টা নাগাদ রান্না ঘরে ভাত বেড়ে উঠোনের ওপর দিয়ে শোয়ার ঘরে আসছিলেন তিনি। তখন অন্ধকারে তাঁর পায়ে কিছু কামড়ায়।

রান্নাঘরে ভাত বাড়ার সময় সাপের কামড়ে মৃত্যু হল এক বধূর। রবিবার রাতে উত্তর ২৪ পরগনার হাবরা থানা এলাকার নগরথুবার ঘটনা। ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

চলতি বর্ষায় রাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকায় সাপের উৎপাত উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে। বিশেষ করে নীচু এলাকাগুলিতে ঘর থেকে বেরোতে ভয় পাচ্ছেন অনেকে। হাবরা ও আশোকনগর পুরসভার প্রান্তিক এলাকা ও খালি জমিতেও সাপের উপদ্রবে উদ্বিগ্ন এলাকাবাসী। এরই মধ্যে রবিবার রাতে ঘটে গেল মর্মান্তিক দুর্ঘটনা।

পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে মৃত বধূর নাম পম্পা দাস (৩০)। রবিবার রাত ১০টা নাগাদ রান্না ঘরে ভাত বেড়ে উঠোনের ওপর দিয়ে শোয়ার ঘরে আসছিলেন তিনি। তখন অন্ধকারে তাঁর পায়ে কিছু কামড়ায়। কিন্তু তাতে বেশি গুরুত্ব দেননি পম্পাদেবী। গভীর রাতে ক্রমশ অসুস্থ হয়ে পড়েন বধূ। শরীরে অস্বস্তি হতে থাকে। তড়িঘড়ি তাঁকে অশোকনগর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন পরিজনরা। ভোররাতে সেখানে তাঁর মৃত্যু হয়। পরিবারের অনুমান কালাচ সাপের কামড়ে মৃত্যু হয়েছে বধূর। তবে সাপটিকে দেখা যায়নি।

ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। পরিবারের লোকেদের আক্ষেপ, গুরুত্ব দিয়ে একটু আগে হাসপাতালে নিয়ে গেলে হয়তো বাঁচানো যেত পম্পাদেবীকে।

 

বন্ধ করুন