বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের ৫০০ টাকা পেতে আবেদন, অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও সাড়ে ২৬ হাজার
একই পরিবারের ৬ জন মহিলার টাকা উধাও
একই পরিবারের ৬ জন মহিলার টাকা উধাও

লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের ৫০০ টাকা পেতে আবেদন, অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও সাড়ে ২৬ হাজার

  • আর তা নিয়েই এখন শোরগোল পড়ে গিয়েছে মহিষাদল ব্লকের এক্তারপুরে এলাকায়।

এক অদ্ভূত ঘটনা ঘটল পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদল এলাকায়। এখানে অনেকেই লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের ৫০০ টাকা পাওয়ার জন্য আবেদন করেছেন। সারা রাজ্যজুড়ে চলা দুয়ারে সরকার প্রকল্পে সবচেয়ে বেশি লাইন পড়েছিল লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পে। কিন্তু এখানে আবেদন করে এক মহিলার অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে গেল ৫০০০ টাকা। আর তা নিয়েই এখন শোরগোল পড়ে গিয়েছে মহিষাদল ব্লকের এক্তারপুরে এলাকায়।

এখানে এখন চর্চা উঠে এসেছে ৫০০ টাকা মিলল না কিন্তু ৫০০০ টাকা উধাও হযে গেল। ৫০০ টাকা পাওয়ার বদলে ৫০০০ টাকা খোয়া যাওয়া নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। শুধু তাই নয়, এই ঘটনা এলাকার একই পরিবারের ৬ জন মহিলার সঙ্গে ঘটেছে বলে অভিযোগ। অ্যাকাউন্ট থেকে পাঁচ জনের ৫০০০ টাকা করে এবং একজনের ১৫০০ টাকা মোট ২৬,৫০০ টাকা উধাও হয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ।

ঠিক কী ঘটেছে মহিষাদলে?‌ অভিযোগ, গত ১৫ সেপ্টেম্বর মহিষাদল ব্লকের এক্তারপুর এলাকায় দুয়ারে সরকারের শিবির বসেছিল। সেখানে ‘‌জানা’‌ পরিবারের পাঁচ মহিলা তাঁদের লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের দুটি ম্যাসেজ কেনে ঢুকছে না জানতে যান। সেখানে তাঁদের নাম ও ফোন নম্বর নেওয়া হয়। পরের দিন অর্থাৎ ১৬ সেপ্টেম্বর বাড়িতে গিয়ে কাগজপত্র নেওয়ার পাশাপাশি আঙুলের ছাপ নেওয়া হয়। তারপরেই দেখা যায় তাঁদের অ্যাকাউন্ট থেকে ৫০০০ করে টাকা কেটে নেওয়া হয়েছে।

এই ঘটনা ঘটতেই মহিলারা বিষয়টি নিয়ে মহিষাদল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ সূত্রে খবর, এই ঘটনার তদন্তে নেমে মহিষাদলের গোপালপুরের বাসিন্দা তুষার অধিকারী নামক এক যুবককে আটক করা হয়েছে। মহিষাদল থানা সূত্রে খবর, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

বন্ধ করুন