বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তৃণমূল ছাড়তে চাই, সরাসরি ফেসবুকে লিখলেন মিহির গোস্বামী
মিহির গোস্বামী। ফাইল ছবি
মিহির গোস্বামী। ফাইল ছবি

তৃণমূল ছাড়তে চাই, সরাসরি ফেসবুকে লিখলেন মিহির গোস্বামী

  • আজ সব সহ্যের সীমা অতিক্রম করার সময় অনুভব করেছি, বাইশ বছর আগে যে দলটির সঙ্গে যোগ দিয়েছিলাম, আজকের তৃণমূল সেই দল নয়। এই দলে আমার জায়গা নেই, বললেন কোচবিহার দক্ষিণের বিধায়ক।

তৃণমূল ছাড়তে চেয়ে ফের বিস্ফোরক কোচবিহার দক্ষিণের বিধায়ক মিহির গোস্বামী। বৃহস্পতিবার ফেসবুকে এক পোস্ট করে তৃণমূলের সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করতে চান বলে জানান তিনি। মিহিরবাবুর মন্তব্যে স্পষ্ট, মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ তাঁর বাড়ি গেলেও গলেনি বরফ। 

এদিন মিহিরবাবু ফেসবুকে লিখেছেন, ‘গত দশ বছর যে তৃণমূল দলের একনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে দলের মধ্যে বারবার অবহেলিত ও অপমানিত হয়েছি, দলের রাজ্য নেতৃত্ব তাতে নীরব ও প্রচ্ছন্ন মদত যুগিয়ে গিয়েছেন, দলনেত্রীকে সেসব কথা বারংবার জানিয়েও পরিস্থিতির ইতরবিশেষ হয়নি। আজ সব সহ্যের সীমা অতিক্রম করার সময় অনুভব করেছি, বাইশ বছর আগে যে দলটির সঙ্গে যোগ দিয়েছিলাম, আজকের তৃণমূল সেই দল নয়। এই দলে আমার জায়গা নেই। তাই আজ এই তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে আমার যাবতীয় সম্পর্ক ছিন্ন করতে চাই। আমি আশা করছি, আমার দীর্ঘদিনের সাথী বন্ধু ও শুভানুধ্যায়ীরা আমাকে মার্জনা করবেন’।

গত ৩ অক্টোবর দলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে তৃণমূলের সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দেন মিহিরবাবু। তার পর থেকেই তাঁর বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা চলছে। দুর্গাপুজোর পর তৃণমূল নেতারা মিহিরবাবুর সঙ্গে দেখা করতে তাঁর বাড়ি গেলেও দেখা পাননি। কিন্তু বিজেপি সাংসদ নীশিথ অধিকারীর সঙ্গে দেখা করেন তিনি। সম্প্রতি ফের তাঁর বাড়িতে যান মন্ত্রী তথা কোচবিহারের তৃণমূল নেতা রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। মিহিরদা তৃণমূলেই থাকবেন বলে আশাপ্রকাশ করেন তিনি। কিন্তু তখনও নিজের অবস্থানে অনড় ছিলেন মিহিরবাবু।

 

বন্ধ করুন