বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > জিটিএ নির্বাচন ২৬ জুন, আজ জারি হল সরকারি বিজ্ঞপ্তি, কী আছে সেখানে?‌
জিটিএ ভবন

জিটিএ নির্বাচন ২৬ জুন, আজ জারি হল সরকারি বিজ্ঞপ্তি, কী আছে সেখানে?‌

  • যদিও এই নির্বাচন নিয়ে বেঁকে বসেছেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সভাপতি বিমল গুরুং। তিনি এই নির্বাচন এখন চান না বলে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছিলেন। সেটা না হওয়ায় তিনি এখন আমরণ অনশনে বসেছেন। জিটিএ নির্বাচনের জন্য দার্জিলিংয়ের জেলাশাসককে নির্বাচনী আধিকারিক ঘোষণা করে মে মাসেই ঘোষণা করেছে রাজ্য।

গোর্খা টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (‌জিটিএ)‌ নির্বাচনের সরকারি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হল। আগে এই নির্বাচন হবে বলে ঘোষণা করা হয়েছিল। সর্বদলীয় বৈঠক ডেকে তা জানিয়ে দেওয়া হয়। আজ, শুক্রবার সরকারি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। সেখানে জিটিএ নির্বাচনের দিনক্ষণ থেকে শুরু করে ফলাফল এবং মনোনয়নের তারিখ উল্লেখ করা হয়েছে।

ঠিক কী উল্লেখ রয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে?‌ এদিন প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, আজ ২৭ মে, শুক্রবার এই বিষয়ে সরকারি বিজ্ঞপ্তি জারি করার কথা ছিল। পাহাড়ে আগামী ২৬ জুন গোর্খাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বা জিটিএ–এর নির্বাচন হবে। আগামী ৩ জুন মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ তারিখ। তার পরের দিন অর্থাৎ ৪ জুন মনোনয়নগুলির স্ক্রটিনি হবে। আর ৬ জুন মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষদিন। আর সবকিছু শেষ করতে হবে ৭ জুলাইয়ের মধ্যে।

এই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন স্বরাষ্ট্র এবং পাহাড় বিষয়ক দফতরের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব বিপি গোপালিকা। এই বিজ্ঞপ্তি জারির নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। জিটিএ নির্বাচনের বিষয়ে মঙ্গলবার দার্জিলিংয়ের জেলাশাসকের দফতরে সর্বদলীয় বৈঠক ডাকা হয়। সেখানে ১৮টি রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও দু’টি রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি হাজির ছিলেন না। বাকি ১৬টি দল ছিল।

যদিও এই নির্বাচন নিয়ে বেঁকে বসেছেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সভাপতি বিমল গুরুং। তিনি এই নির্বাচন এখন চান না বলে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছিলেন। সেটা না হওয়ায় তিনি এখন আমরণ অনশনে বসেছেন। জিটিএ নির্বাচনের জন্য দার্জিলিংয়ের জেলাশাসককে নির্বাচনী আধিকারিক ঘোষণা করে মে মাসেই ঘোষণা করেছে রাজ্য। সেটাকে চ্যালেঞ্জ করে মামলা দায়ের করা হলেও গত সপ্তাহে জিটিএ নির্বাচনে হস্তক্ষেপ না করার কথা জানায় কলকাতা হাইকোর্ট।

বন্ধ করুন