বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পথদুর্ঘটনায় নিহত স্কুলছাত্রী, জনতার রোষে পুড়ল বাস
প্রতীকী ছবি।
প্রতীকী ছবি।

পথদুর্ঘটনায় নিহত স্কুলছাত্রী, জনতার রোষে পুড়ল বাস

  • দাদার স্কুটিতে বসে প্রাইভেট টিউটরের কাছে পড়তে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী তৃষা চক্রবর্তী। ক্ষিপ্ত জনতা উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণের বাসে ভাঙচুর চালায়।তিনটি বাসে আগুন লাগানো হয়।

পথ দুর্ঘটনায় স্কুলছাত্রীর মৃত্যুর জেরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল জলপাইগুড়ির মোহিতনগর রেলগেট এলাকা। ক্ষিপ্ত জনতার হাতে পুড়ল সরকারি বাস। ঘটনায় চার জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার সকালে দাদার স্কুটিতে বসে প্রাইভেট টিউটরের কাছে পড়তে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী তৃষা চক্রবর্তী। তাঁদের স্কুটির পিছনে সজোরে ধাক্কা মারে শিলিগুড়িমুখী উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণের একটি বাস।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, রেলগেট বন্ধ থাকায় রাস্তায় যানজট ছিল। সেই সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে স্কুটিতে এসে ধাক্কা মারে বাসটি। সেই অভিঘাতে দুই স্কুটি আরোহী রাস্তায় পড়ে গেলে তৃষাকে পিষে দেয় বাসের চাকা। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। তাঁর দাদাকে জলপাইগুড়ির সরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, রানি নগর হাইস্কুলের ছাত্রী তৃষা উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তিনি জলপাইগুড়ি শহরতলির রানি নগর এলাকারই বাসিন্দা ছিলেন।

দুর্ঘটনার পরেই ক্ষিপ্ত জনতা উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণের প্রতিটি বাসে ভাঙচুর চালাতে শুরু করে। তার মধ্যে তিনটি বাসে আগুন লাগানো হয়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ ও দমকল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মোতায়েন করা হয় র‌্যাফ। দমকলের চেষ্টায় আগুন নেভানো হয়। দুপুর একটা নাগাদ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এসেছে বলে জানিয়েছেন জলপাইগুড়ির পুলিশ সুপার অভিষেক মোদী।

উল্লেখ্য, শুক্রবার জলপাইগুড়ি লাগোয়া দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুর থানার অন্তর্গত পাগলিগঞ্জে চলন্ত গাড়ির ধাক্কায় মারা যায় এক স্কুলছাত্র।

বন্ধ করুন