বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > লাঠি হাতে নিয়ে বিজেপি কর্মীদের তেড়ে গেলেন তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার
লাঠি হাতে বিধায়ক অসিত মজুমদার।

লাঠি হাতে নিয়ে বিজেপি কর্মীদের তেড়ে গেলেন তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার

  • তৃণমূলের এক মহিলা কর্মীর দাবি, বিজেপির কর্মীরা তাদের মারধর করেছে তাই পাল্টা তারাও মারধর করেছেন। এদিকে বিজেপি থানায় গেলে তৃণমূলও থানায় যায়। অভিযোগ, সেখানে দু পক্ষের মারপিট হয়। পরে পুলিশ দুপক্ষকে সরিয়ে দেয়। এ নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য।

বিজেপি কর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ উঠল তৃণমূল কর্মী এবং খোদ তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে। হুগলির চুঁচুড়ায় তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার খোদ লাঠি হাতে নিয়ে বিজেপি কর্মীদের হামলা করেছেন বলে অভিযোগ। এমনকি এক বিজেপি কর্মীকে তিনি মারধর করেছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উতপ্ত হয়ে ওঠে চুঁচুড়া। যদিও এই অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছেন বিধায়ক। পাল্টা তিনি বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। বিজেপি কর্মীরা তাঁর গাড়ি ঘিরে নিগ্রহ করছিল সেই কারণে দলের কর্মীরাই তার প্রতিবাদ জানিয়েছে বলে বিধায়ক দাবি করছেন।

বিজেপির দাবি, গত কাল সন্ধ্যায় চুঁচুড়ার খাদিনামোড়ের কাছে তারা শান্তিপূর্ণভাবে মিছিল করছিল। সেই মিছিলের মধ্যে আচমকা গাড়ি নিয়ে চলে আসেন তৃণমূল বিধায়ক। তার প্রতিবাদ করেছিলেন বিজেপি কর্মীরা। আর তারপরেই দলীয় কার্যকলয় থেকে তৃণমূল কর্মীরা এসে বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা চালায়। বিধায়ক নিজেও লাঠি হাতে তুলে নিয়ে মারধর করেছেন। এমনকি এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিজেপি চুঁচুড়া থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে সেখানেও তাদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। তৃণমূল বিধায়ক অসিতের পাল্টা দাবি, তিনি কলকাতা থেকে গাড়ি করে ফিরছিলেন রাস্তায় ভীষণ যানজট দেখে তিনি তা ক্রস করে এগিয়ে যান। এর পরে বিজেপি কর্মীরা তার উপর হামলা চালায়। পরে স্থানীয় কার্যালয় থেকে তৃণমূল কর্মীরা এলে তাদের সঙ্গে মারপিট বাঁধে।

তৃণমূলের এক মহিলা কর্মীর দাবি, বিজেপির কর্মীরা তাদের মারধর করেছে তাই পাল্টা তারাও মারধর করেছেন। এদিকে বিজেপি থানায় গেলে তৃণমূলও থানায় যায়। অভিযোগ, সেখানে দু পক্ষের মারপিট হয়। পরে পুলিশ দুপক্ষকে সরিয়ে দেয়। এ নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, ‘দশ বছর ধরে তৃণমূল বিধায়ক রয়েছেন অসিত। দীর্ঘদিনের এক বিধায়ককে বিজেপি কর্মীরা হেনস্থা করছে এটা মানা যায় না। ’এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন শমীক ভট্টাচার্য

বন্ধ করুন