বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ২১ জুলাইয়ের সভা থেকে ফিরেই করোনা পজিটিভ বিধায়ক, আতঙ্কে কাঁটা হুগলি জেলা তৃণমূল
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

২১ জুলাইয়ের সভা থেকে ফিরেই করোনা পজিটিভ বিধায়ক, আতঙ্কে কাঁটা হুগলি জেলা তৃণমূল

  • মঙ্গলবার হুগলির চণ্ডীতলায় তৃণমূলের ভার্চুয়াল জনসভায় অংশগ্রহণ করেন জাঙ্গিপাড়ার বিধায়ক স্নেহাশিস চক্রবর্তী। বুধবার সকালে তার করোনা পরীক্ষার পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

২১ জুলাইয়ের ভার্চুয়াল সভা শেষ করে বাড়ি ফিরেই করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ তৃণমূল বিধায়কের। তার জেরেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে হুগলিতে। বিধায়কের সংস্পর্শে আসায় কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে শ্রীরামপুরের তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে। 

মঙ্গলবার হুগলির চণ্ডীতলায় তৃণমূলের ভার্চুয়াল জনসভায় অংশগ্রহণ করেন জাঙ্গিপাড়ার বিধায়ক স্নেহাশিস চক্রবর্তী। বুধবার সকালে তার করোনা পরীক্ষার পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তার পরই শোরগোল পড়ে যায় জেলা তৃণমূলে। বিধায়কের সংস্পর্শে কে কে এসেছেন তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা। ওই অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। হুগলি জেলা তৃণমূল জেলা সভাপতি দিলীপ যাদব। 

জানা গিয়েছে, বিধায়কের স্ত্রী, ছেলে, শ্বশুর, শাশুড়ি, দেহরক্ষী ও গাড়ির চালকও করোনা আক্রান্ত। বিধায়কের গোটা পরিবারকে হোম আইসোলেশনে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পঞ্চায়েতের তরফে স্যানিটাইজ করা হয়েছে তাঁর বাড়ি। 

তৃণমূল সূত্রের খবর, দিন কয়েক আগে জ্বর এসেছিল স্নেহাশিসবাবুর। সাধারণ প্যারাসিটামল খেয়ে উপশমও হয়। তার পর করোনা পরীক্ষা করানোর সিদ্ধান্ত নেন তিনি। 

 

বন্ধ করুন