বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > নিম্নচাপে দীঘায় দফায় দফায় বৃষ্টি, রয়েছে প্রশাসনিক নজরদারি, ছুটির আনন্দে বাধা
দীঘায় মাইকিং করে চলছে সতর্কতা। নিজস্ব ছবি 

নিম্নচাপে দীঘায় দফায় দফায় বৃষ্টি, রয়েছে প্রশাসনিক নজরদারি, ছুটির আনন্দে বাধা

  • নিম্নচাপ এবং ভরা কোটলের কারণে আজ সকাল থেকেই উত্তাল দীঘার সমুদ্র। সমুদ্রের ঢেউ আছড়ে পড়ছে পাথুরে দেওয়ালে। ফলে সমুদ্র স্নানে নামলে বড় বিপদ ঘটতে পারে। সেই আশঙ্কায় প্রশাসনের তরফে সমুদ্র স্নানে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। 

নিম্নচাপ এবং ভরা কোটালের কারণে দীঘায় সমুদ্র স্নানে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন। ৮ আগস্ট থেকে ১১ আগস্ট পর্যন্ত দিঘার সমুদ্রে স্নানে নামার ক্ষেত্রে সর্তকতা জারি রয়েছে। আজ সকাল থেকে দফায় দফায় নামে বৃষ্টি। মহরমের ছুটির ফলে আজ দীঘায় পর্যটকদের ভিড় রয়েছে। তবে এই সমস্ত কারণে আপাতত পর্যটকদের দীঘায় ঘুরতে যাওয়ার আনন্দ মাটি হয়ে গেল।

নিম্নচাপ এবং ভরা কোটলের কারণে আজ সকাল থেকেই উত্তাল দীঘার সমুদ্র। সমুদ্রের ঢেউ আছড়ে পড়ছে পাথুরে দেওয়ালে। ফলে সমুদ্র স্নানে নামলে বড় বিপদ ঘটতে পারে। সেই আশঙ্কায় প্রশাসনের তরফে সমুদ্র স্নানে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। গতকাল থেকেই প্রশাসনের তরফে মাইকিং করে সতর্ক করা হচ্ছে পর্যটকদের। দড়ি দিয়ে গিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে দীঘার দেওয়াল। তারপরেও প্রশাসনের নজরদারি এড়িয়ে জলে নামার চেষ্টা করছেন অনেক পর্যটক। এরকম দেখতে পেলেই হুইসেল বাজিয়ে ছুটে চলে আসছে পুলিশ এবং নুলিয়া। গত রবিবারই প্রশাসনের নজরদারি এড়িয়ে স্নান করতে গিয়ে প্রাণ গিয়েছিল টালিগঞ্জের এক বাসিন্দার। তারপর থেকে আরও কড়া নজরদারি চালাচ্ছে প্রশাসন। নুলিয়া, সিভিক ভলেন্টিয়ার, ডিজস্টার ম্যানেজমেন্ট এবং পুলিশ কর্মীরা সেখানে প্রতিনিয়ত নজরদারি চালাচ্ছেন। নজরদারির পাশাপাশি মাইকিং করেও সচেতন করছে পুলিশ।

গতকাল সকাল থেকেই দীঘাতে দফায় দফায় বৃষ্টি হচ্ছে। সেই সঙ্গে বইছে ঝড়ো হাওয়া। আজ তা কিছুটা বেড়েছে। প্রশাসনিক সূত্রের খবর, সবমিলিয়ে দীঘার হোটেলগুলিতে এখন ৫০ থেকে ৬০ হাজার পর্যটকের ভিড় রয়েছে। তবে সমুদ্রের অপরূপ দৃশ্য দূর থেকেই উপভোগ করতে হচ্ছে সমুদ্র সৈকতে আগত পর্যটকদের।

বন্ধ করুন