বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > One ticket for all Kolkata tourist spots- এক টিকিটেই ভিক্টোরিয়া থেকে ইকো পার্ক, সব স্থানেই প্রবেশ! মিলবে অনলাইনেও

One ticket for all Kolkata tourist spots- এক টিকিটেই ভিক্টোরিয়া থেকে ইকো পার্ক, সব স্থানেই প্রবেশ! মিলবে অনলাইনেও

ছবি সূত্র: পিটিআই (PTI)

এখনও পর্যন্ত কলকাতার মোট ৩০টি স্থান বেছে নেওয়া হয়েছে এই পাসের জন্য। এর মধ্যে রয়েছে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল, ইন্ডিয়ান মিউজিয়াম, বোটানিকাল গার্ডেন, আলিপুর চিড়িয়াখানা, নিকো পার্ক, ইকো পার্ক এবং সায়েন্স সিটির মতো জনপ্রিয় স্থানগুলি। কিন্তু এই টিকিট কাটবেন কোথা থেকে?

কলকাতা ঘুরতে বেরিয়েছেন। এদিকে প্রতিটি জায়গায় সেই বিরক্তিকর লাইন। টিকিট কাটতে হবে। এই সমস্যারই এবার সমাধান করা হচ্ছে। 'ইনটিগ্রেটেড টুরিস্ট পাসে'র মাধ্যমে এবার থেকে একটি টিকিট কাটলেই হবে। তারপর সারাদিন পর পর ঢুঁ মারতে পারবেন শহরের দ্রষ্টব্য স্থানগুলিতে।

TOI-এর রিপোর্ট, রাজ্যের পরিবহন দফতরের এক আধিকারিক জানান যে, খুব শীঘ্রই এটি লঞ্চ করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এখনও পর্যন্ত কলকাতার মোট ৩০টি স্থান বেছে নেওয়া হয়েছে এই পাসের জন্য। এর মধ্যে রয়েছে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল, ইন্ডিয়ান মিউজিয়াম, বোটানিকাল গার্ডেন, আলিপুর চিড়িয়াখানা, নিকো পার্ক, ইকো পার্ক এবং সায়েন্স সিটির মতো জনপ্রিয় স্থানগুলি। কিন্তু এই টিকিট কাটবেন কোথা থেকে?

সেই বিষয়টিও সহজ হচ্ছে। অনলাইনে একটি অ্যাপের মাধ্যমেই ফোনে টিকিট কেটে ফেলা যাবে। ফলে শীতের দুপুরে ঘুরতে বেরিয়ে টিকিট কাটতে গিয়ে ১ ঘণ্টা লাইন দিতে হবে না। সোজা ফোন দেখিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন- যেখানে খুশি! আরও পড়ুন: ইকো পার্কে খুলে গেল ভারতের প্রথম সোলার ডোম! আজই দেখে আসুন এই আশ্চর্য গম্বুজ

এর পাশাপাশি অবশ্য কিছু কিছু স্থানে কাউন্টারেই এই অল-ইন-ওয়ান টিকিট পাবেন। তবে এখনও পর্যন্ত এর দাম স্থির করে উঠতে পারেননি পরিবহন দফতরের কর্তারা। এই বিষয়ে আলোচনা চলছে বলে জানা গিয়েছে।

কিন্তু একদিনে তো এতগুলি স্থান ঘোরা যাবে না! সেক্ষেত্রে ৩০টি স্থানের টিকিটে কী লাভ? এই বিষয়েও ভাবা হয়েছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী, জোন-ভিত্তিক পাস হবে। ফলে একটি টিকিটে ইকো পার্ক, নিকো পার্ক, সায়েন্স সিটি যাওয়া যাবে। আবার তেমনই মিউজিয়াম, ভিক্টোরিয়া, বি গার্ডেন এবং চিড়িয়াখানার পাস একসঙ্গে হবে।

এর ফলে কলকাতা ঘুরতে বের হওয়া রাজ্যবাসীর সুবিধা তো হবেই। পাশাপাশি ভিনরাজ্য বা বিদেশ থেকে আসা পর্যটকরাও ভিড়ে লাইনে দাঁড়িয়ে সময় নষ্ট করা থেকে অব্যাহতি পাবেন।

প্রসঙ্গত, শীঘ্রই 'হো-হো' বাস পরিষেবার পুরোদমে চালু করতে চাইছে রাজ্য সরকার। 'হপ অন, হপ অফ' বাসগুলি শহরের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানগুলির মধ্যের রুটে চলবে। এই বাসের জন্য একবার টিকিট কাটলেই যথেষ্ট। সারাদিন যতবার ইচ্ছা ওঠানামা করা যাবে। আরও পড়ুন: HoHo Bus: নতুন ‘হোহো’ বাস চালু হবে কলকাতায়, লন্ডন, প্যারিসে আছে এই পরিষেবা

মূলত ভিন রাজ্য ও বিদেশের পর্যটকদের এতে সুবিধা হবে। অচেনা স্থানে বাস রুট বোঝা, ট্যাক্সি ভাড়া থেকে মুক্তি পাবেন তাঁরা। ইউরোপে এই ধরনের পর্যটন বাস বেশ জনপ্রিয়।

বন্ধ করুন