বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অফিসে বসেই চলছিল ক্রিকেট বেটিং, ধৃত চার্টার্ড অ্যাকাউট্যান্ট-সহ ৪ জন
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

অফিসে বসেই চলছিল ক্রিকেট বেটিং, ধৃত চার্টার্ড অ্যাকাউট্যান্ট-সহ ৪ জন

  • গোয়েন্দাদের কাছে খবর ছিল, ক্রিকেট জুয়া চালানোর জন্য বেশ কয়েকটি অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন জুয়ারিরা। সম্প্রতি সেই সব অ্যাপের নজর রাখছিলেন গোয়েন্দারা। তখনই দেখা যায়, কলকাতায় বসেই আইপিএল ম্যাচকে ঘিরে বেটিং চলছে।

‌পার্ক স্ট্রিটে একটি বহুতলে অফিসে বসেই চলছিল অনলাইন ক্রিকেট বেটিং। আচমকাই সেখানে হানা দিয়ে ৪ জনকে ধরে ফেললেন কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দারা। ধৃত ৪ জনের মধ্যে একজন চার্টার্ড অ্যাকাউন্টট্যান্ট। বাকিরা ব্যবসায়ী। অফিসের ভিতর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে মোবাইল ফোন ও লক্ষাধিক টাকা। এই বেটিং চক্রের পিছনে আর কারা জড়িত রয়েছে, পুলিশ তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, আইপিএলে কেকেআরের ম্যাচ চলার সময়ে যে বেটিং হবে, তা আগে থেকেই খবর পেয়েছিল লালবাজারের গোয়েন্দারা। সেইমতো গত শনিবার বিকেলে পার্ক স্ট্রিটের একটি বহুতলে হানা দেন গোয়েন্দারা। তাঁরা যখন আসে, তখন দেখেন, ক্রিকেট ম্যাচ চলছে। ম্যাচ চলার সঙ্গে সঙ্গে চলছে ক্রিকেট বেটিং। ঘটনাস্থল থেকেই চার্টার্ড অ্যাকাউন্টট্যান্ট বিষ্ণু বোয়ালকা, তিন ব্যবসায়ী বৈভব বিদ্যাসারিয়া, পঙ্কজ বাগলা ও পীযুষ বাগলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তদন্তকারীরা জানতে পেরেছে, অফিসে বসে একাধিক শহরের জুয়ারিদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিলেন তাঁরা। অফিস থেকে ২ লাখ ৭৭ হাজার টাকা, মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছে গোয়েন্দারা। জুয়া খেলার জন্য এই বিপুল পরিমাণ টাকা আগে থেকেই তুলে রাখা হয়েছিল।

এর আগে বাগুইআটিতে ক্রিকেট বেটিং চক্রের হদিশ পেয়েছিলেন গোয়েন্দারা। কলকাতার বিভিন্ন জায়গা থেকে বেটিং চক্রের হদিশ পাওয়া গিয়েছিল। গোয়েন্দাদের কাছে খবর ছিল, ক্রিকেট জুয়া চালানোর জন্য বেশ কয়েকটি অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন জুয়ারিরা। সম্প্রতি সেই সব অ্যাপের নজর রাখছিলেন গোয়েন্দারা। তখনই দেখা যায়, কলকাতায় বসেই আইপিএল ম্যাচকে ঘিরে বেটিং চলছে। ধৃতদের পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে আরও অনেক তথ্য পাওয়া যাবে বলে মনে করছেন তদন্তকারীরা।

বন্ধ করুন