বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Duare Ration: ‘‌দুয়ারে রেশন’‌ চলবে রাজ্যে, কলকাতা হাইকোর্টের রায়ে স্থগিতাদেশ সুপ্রিম কোর্টের

Duare Ration: ‘‌দুয়ারে রেশন’‌ চলবে রাজ্যে, কলকাতা হাইকোর্টের রায়ে স্থগিতাদেশ সুপ্রিম কোর্টের

দুয়ারে রেশন (টুইটার)

২০২১ সালের ১৬ নভেম্বর থেকে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প চালু করেছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগেই এই প্রকল্পের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তৃতীয়বার ক্ষমতায় এসেই শুরু হয় এই প্রকল্প। এই প্রকল্পের বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেন রেশন ডিলারদের একাংশ।

বিধানসভায় দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, দুয়ারে রেশন প্রকল্প চলবেই। এক্ষেত্রে সরকার কারও কাছে মাথা নোয়াবে না। ঠিক তার দু’‌দিন পর সেই সিদ্ধান্তেই যেন সিলমোহর পড়ল। কারণ আজ, সোমবার কলকাতা হাইকোর্টের রায়ে স্থগিতাদেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। সুতরাং রাজ্যে চলবে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প বলেই মনে করা হচ্ছে। রাজ্য সরকারের এই প্রকল্প চালাতে আর আইনি বাধা রইল না।

কলকাতা হাইকোর্ট কী বলেছিল?‌ এই প্রকল্প নিয়ে যখন কলকাতা হাইকোর্টে মামলা তখন আদালত জানিয়ে দেয়, ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প খাদ্যের অধিকার আইনের পরিপন্থী। এই কারণে সেটা বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিল রাজ্য সরকার। তাতেই স্থগিতাদেশ মেলায় স্বস্তি পেল রাজ্য।

ঠিক কী বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী?‌ প্রায় এক বছর হয়ে গেল এই দুয়ারে রেশন প্রকল্প সর্বত্র বিস্তার করা যায়নি। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী বিধানসভায় দাঁড়িয়ে স্পষ্ট বলেছিলেন, ‘‌যে কোনও মূল্যে রাজ্যে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প চলবেই। কারও আপত্তির কাছে মাথা নোয়াবে না সরকার। আমি একা খাব, আর কাউকে খেতে দেব না, এটা চলতে দেওয়া হবে না। মানুষের জন্য দুয়ারে রেশন প্রকল্প চালু হয়েছিল। মানুষের স্বার্থেই দুয়ারে রেশন চলবে। দরকারে বিধানসভার মাধ্যমে কোর্টকে আবেদন করব। যাতে বিচারের বাণী নীরবে নিভৃতে না কাঁদে।’

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ১৬ নভেম্বর থেকে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্প চালু করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগেই এই প্রকল্পের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তৃতীয়বার ক্ষমতায় এসেই শুরু হয় এই প্রকল্প। এই প্রকল্পের বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেন রেশন ডিলারদের একাংশ। তখন এই প্রকল্পের আইনি বৈধতা নেই বলে জানিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। আজ, সোমবার সর্বোচ্চ আদালত সেই রায়ে স্থগিতাদেশ দিল।

বন্ধ করুন