বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > মঞ্চে কেন মুখ্যমন্ত্রীর ছবি নেই?‌ সচিবের কাছে রিপোর্ট তলব করলেন মন্ত্রী মানস

মঞ্চে কেন মুখ্যমন্ত্রীর ছবি নেই?‌ সচিবের কাছে রিপোর্ট তলব করলেন মন্ত্রী মানস

রাজ্যের পরিবেশ মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া। (Twitter)

বাংলার মুখ্যমন্ত্রী পরিবেশ নিয়ে অত্যন্ত সচেতন। গোটা শহর থেকে শুরু করে গ্রামবাংলায় গাছ–গাছালি দিয়ে সাজিয়ে তোলা হয়েছে। সেখানে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি পরিবেশ দিবসে নেই মেনে নিতে পারেননি মন্ত্রী। পরিবেশমন্ত্রী জানান, মুখ্যমন্ত্রী এই সরকারের প্রধান। তা সত্ত্বেও মঞ্চে তাঁর কোনও ছবি নেই দেখে বিস্মিত হতে হচ্ছে।

বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত হয় ৫ জুন। বাংলাতেও সরকারি–বেসরকারি স্তরে নানা অনুষ্ঠান পালন করা হয়। পরিবেশ নিয়ে সচেতনতার বার্তা দেন পরিবেশমন্ত্রী। এই বছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি। কিন্তু সরকারিভাবে যে মঞ্চে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদ্‌যাপন করা হল সেখানের কোথাও ছিল না বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি। এটা নজর এড়ায়নি পরিবেশমন্ত্রীর। তখন কেন মুখ্যমন্ত্রীর কোনও ছবি ছিল না? তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন রাজ্যের পরিবেশ মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া। এমনকী তিনি এতটাই ক্ষুব্ধ হন যে, মঞ্চে দাঁড়িয়েই রাজ্য পরিবেশ দফতরের প্রধান সচিব রোশনী সেনের কাছ থেকে রিপোর্ট তলব করলেন তিনি। সোমবার, নিউটাউনের বিশ্ব বাংল‌া কনভেনশন সেন্টারে রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ আয়োজিত পরিবেশ দিবস পালনের অনুষ্ঠানে এমন ঘটনাই ঘটেছে।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী পরিবেশ নিয়ে অত্যন্ত সচেতন। গোটা শহর থেকে শুরু করে গ্রামবাংলায় গাছ–গাছালি দিয়ে সাজিয়ে তোলা হয়েছে। পার্ক থেকে ফোয়ারা সব গড়ে তোলা হয়েছে। সেখানে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি পরিবেশ দিবসে নেই মেনে নিতে পারেননি মন্ত্রী। তাই নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে পরিবেশমন্ত্রী জানান, মুখ্যমন্ত্রী এই সরকারের প্রধান। তা সত্ত্বেও মঞ্চে তাঁর কোনও ছবি নেই দেখে রীতিমতো বিস্মিত হতে হচ্ছে। রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের পরিকল্পনা নিয়েও প্রশ্ন তুলে দেন মন্ত্রী মানস। পরিবেশমন্ত্রীর এমন ক্ষোভ প্রকাশ হওয়ায় হতচকিত হয়ে পড়েন মঞ্চে উপস্থিত পর্ষদের কর্তারা।

ঠিক কী বলেছেন পরিবেশমন্ত্রী?‌ মঞ্চে উঠেই তিনি ভাল করে দেখেন। তারপর চুপ করেই ছিলেন। কিন্তু বক্তব্য রাখতে গিয়েই সোচ্চার হন। এই পরিস্থিতি দেখে পরিবেশ মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া বলেন, ‘আমি অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলতে বাধ্য হচ্ছি, এই অনুষ্ঠানের আয়োজক বা রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের পক্ষ থেকে মঞ্চের উপরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি বা বার্তা অবশ্যই রাখা উচিত ছিল। কিন্তু কেন তা করা হয়নি?‌ এই বিষয়ে রোশনী সেনকে আমি রিপোর্ট জমা দিতে বলছি। কারণ, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশেই দফতরের যাবতীয় কাজকর্ম হয়। তাই এখানে তাঁর কোনও ছবি না থাকায় আমি খুবই বিস্মিত।’

তারপর ঠিক কী ঘটল?‌ মন্ত্রীর এই বক্তব্য শুনে তখন একে অন্যের মুখ চাওয়া–চায়ি করতে শুরু করেন। শরীরী ভাষায় প্রকট হয়ে ওঠে ভুলের জন্য অপরাধবোধ। কিন্তু সবটাই মুখ বুজে হজম করতে হচ্ছে সরকারি কর্তাদের। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে ‘অপ্রস্তুত’ পর্ষদের কর্তারা কিছু একটা বলতে যান মন্ত্রীকে। কিন্তু তা শোনার আগ্রহ দেখাননি পরিবেশমন্ত্রী। মুখে তখন একরাশ ক্ষোভের ছাপ রয়েছে। পরিবেশ সচিব মন্ত্রীর নির্দেশ পেয়ে তখন ঘামতে শুরু করেছেন। আর মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া কড়া নির্দেশ দেন, পরবর্তীতে দফতরের বা পর্ষদের সমস্ত অনুষ্ঠানে যেন মুখ্যমন্ত্রীর ছবি থাকে।

বাংলার মুখ খবর

Latest News

মেষ-বৃষ-মিথুন-কর্কট রাশির কেমন কাটবে শুক্রবার? জানুন রাশিফল কোপা চ্যাম্পিয়ন হয়ে FIFA Rankings-এ শীর্ষস্থান মজবুত হল মেসিদের, ১২৪-এ থাকল ভারত Paris Olympics 2024: অফিসিয়ালি খুলে গেল প্যারিস অলিম্পিক্সের গেমস ভিলেজ ENG vs WI: মাত্র ২৬ বলে ৫০, টেস্টের ইতিহাসে দ্রুততম দলীয় হাফসেঞ্চুরি ইংল্যান্ডের T20-র মতো শুরু, ODI-এর ঢংয়ে শেষ, নটিংহ্যাম টেস্টের ১ম দিনেই ৪০০ টপকাল ইংল্যান্ড মার্কিন প্রেসিডেন্ট ভোট, আসরে হাজির ওবামা, বাইডেনের উপর কি আর ভরসা রাখা সম্ভব? বৌদি সোহিনী শ্বশুরবাড়িতে কতটা খাপ খাইয়ে নিয়েছেন? জানালেন 'ননদিনি' দীপ্সিতা জনতা-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধ মালদায়! বিদ্যুৎ বিভ্রাট ঘিরে অবরোধকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র রেকর্ড ৩.২ কোটি ট্রান্সফার ফি কেরালাকে দিয়ে জিকসনকে নিল ইস্টবেঙ্গল- রিপোর্ট ক্যাপ্টেন্সি এল না, চলে গেল ভাইস-অধিনায়ক, ডিভোর্স- হার্দিকের 'ব্ল্যাক থার্সডে'

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.