বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Mamata Banerjee: মুড়িতে জিএসটি নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ মমতার, ‘উনি মিথ্যা বলছেন’ পাল্টা সুকান্ত
মুড়ি হাতে নিয়ে জিএসটি নিয়ে মমতাকে আক্রমণ মমতার। 

Mamata Banerjee: মুড়িতে জিএসটি নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ মমতার, ‘উনি মিথ্যা বলছেন’ পাল্টা সুকান্ত

  • আজ শহিদ সমাবেশে কার্যত মুড়ি আনিয়ে তা হাতে নিয়ে মমতা জনসমক্ষে মুড়িতে জিএসটি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, ‘মুড়িতেও জিএসটি! বিজেপির বন্ধুরা মুড়ি খাবেন না! মুড়িতে জিএসটি, মিষ্টিতে জিএসটি, চিড়িতেও জিএসটি! নকুলদানায় কত জিএসটি? বাতাসায় কত জিএসটি? নিম পাতায় কত জিএসটি?’

সম্প্রতি মুড়ি, চিরে, লস্যির মতো সাধারণ খাবারে জিএসটি কার্যকর করেছে কেন্দ্র সরকার। একুশের শহিদ দিবসের সমাবেশে এ নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, মুড়ি ফিরিয়ে দাও না হলে বিজেপি বিদায় নাও। পাল্টা জিএসটি নিয়ে মমতার বিরুদ্ধে মিথ্যা বলার অভিযোগ তুলেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

আজ শহিদ সমাবেশে কার্যত মুড়ি আনিয়ে তা হাতে নিয়ে মমতা জনসমক্ষে মুড়িতে জিএসটি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, ‘মুড়িতেও জিএসটি! বিজেপির বন্ধুরা মুড়ি খাবেন না! মুড়িতে জিএসটি, মিষ্টিতে জিএসটি, চিড়িতেও জিএসটি! নকুলদানায় কত জিএসটি? বাতাসায় কত জিএসটি? নিম পাতায় কত জিএসটি?’ এর পরে তিনি বলেন, ‘মানুষ কী খাবে। আমাদের মুড়ি ফিরিয়ে দাও নইলে বিজেপি বিদায় নাও, আমাদের জিনিস ফিরিয়ে দাও না হলে বিজেপি বিদায় নাও।’ মমতার স্পষ্ট দাবি মুড়ি, চিরে থেকে জিএসটি প্রত্যাহার করতে হবে না হলে বিজেপিকে বিদায় নিতে হবে।

মমতার এই দাবি নিয়ে সমালোচনা করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘জিএসটির বৈঠকে রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিরা ছিলেন। তারা এই সমস্ত প্যাকেটজাত সামগ্রীতে জিএসটি বসানোর বিরোধিতা না করে উল্টে সমর্থন করেছেন। প্যাকেটজাত দ্রব্যে যে ৫% জিএসটি বসানো হয়েছে তা না হলে সাধারণ মানুষ বঞ্চিত হতেন। এই টাকা সাধারণ মানুষের। এটা আমার পকেটে ঢুকবে না মোদীজির পকেটেও ঢুকবে না।’

সুকান্ত পাল্টা দাবি করেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মিথ্যা কথা বলছেন। রাজ্য সরকারও এই টাকা ভাগ পায়। ওনার প্রতিনিধিরা বৈঠক উপস্থিত ছিলেন। তারা জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে এটিকে সমর্থন জানিয়েছেন। কারণ জিএসটির অধিকাংশ টাকাই পায় রাজ্য সরকার।’ পাল্টা তৃণমূল নেতাদের দাবি, সুকান্ত মজুমদার মিথ্যা কথা বলছেন।

বন্ধ করুন