বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > নতুন শিক্ষানীতি লাগু হলে শুধু পশ্চিমবঙ্গে আরও ২.৫ লক্ষ শিক্ষক লাগবে: দিলীপ ঘোষ
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

নতুন শিক্ষানীতি লাগু হলে শুধু পশ্চিমবঙ্গে আরও ২.৫ লক্ষ শিক্ষক লাগবে: দিলীপ ঘোষ

  • দিলীপবাবু বলেন, নতুন শিক্ষানীতিতে ছাত্র শিক্ষকের অনুপাত ৩০-এর নীচে আনতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। বর্তমানে তা ৪০-এর উপরে রয়েছে।

নতুন শিক্ষানীতি লাগু হলে পশ্চিমবঙ্গে ২ – ২.৫ লক্ষ অতিরিক্ত শিক্ষক লাগবে। এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, ২০২২ সালের মধ্যে নতুন শিক্ষানীতি কার্যকর করার লক্ষ্যমাত্রা রেখেছে কেন্দ্রীয় সরকার। 

শনিবার বিজেপি আয়োজিত শিক্ষক দিবস উজ্জাপনের একটি অনুষ্ঠানে দিলীপবাবু বলেন, নতুন শিক্ষানীতিতে ছাত্র শিক্ষকের অনুপাত ৩০-এর নীচে আনতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। বর্তমানে তা ৪০-এর উপরে রয়েছে। আমি আন্দামানে ছিলাম। সেখানে ছাত্র শিক্ষকের অনুপাত ১৭ – ২০। 

এর পরই দিলীপবাবু বলেন, নতুন শিক্ষানীতিতে ছাত্র – শিক্ষক অনুপাত কমাতে গেলে অন্তত ২ – ২.৫ লক্ষ নতুন শিক্ষকের প্রয়োজন হবে। একটা ক্লাসে ২০ -২২ জন ছাত্র থাকলে শিক্ষক প্রতিটি ছাত্রের দিকে আলাদা করে মনোযোগ দিতে পারবেন। কিন্তু ৪০ জন ছাত্র থাকলে তখন তেমনটা করা সম্ভব নয়। তখন তাঁকে একটা লেকচার দিয়ে বেরিয়ে যেতে হবে। 

দিলীপবাবু বলেন, এজন্য সমাজ খরচ করতেও তৈরি রয়েছে। এখন সাধারণ কর্মচারীও সন্তানকে মোটা টাকা খরচ করে বেসরকারি স্কুলে পড়ান। সঙ্গে তাঁর দাবি, বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থায় টিউশন ব্যবস্থার যে রমরমা হয়েছে তা ভাঙবে নতুন শিক্ষানীতি। 

এদিন নতুন শিক্ষানীতির ভূয়সী প্রশংসা করেন দিলীপবাবু। বলেন, এই শিক্ষানীতি ভারতকে স্বনির্ভর করবে।

 

বন্ধ করুন