বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বাংলার ঐতিহ্য ও উন্নয়নকে ঢাকার ধ্বংসাত্মক ষড়যন্ত্র করছে বিজেপি, অভিযোগ পার্থর
বিজেপি-র কোনও এজেন্ডা নেই, শুধুমাত্র উন্নয়নের পথে ব্যাঘাত সৃষ্টি করার প্রচেষ্টা চলেছে। শুক্রবার অভিযোগ করলেন পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। 
বিজেপি-র কোনও এজেন্ডা নেই, শুধুমাত্র উন্নয়নের পথে ব্যাঘাত সৃষ্টি করার প্রচেষ্টা চলেছে। শুক্রবার অভিযোগ করলেন পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। 

বাংলার ঐতিহ্য ও উন্নয়নকে ঢাকার ধ্বংসাত্মক ষড়যন্ত্র করছে বিজেপি, অভিযোগ পার্থর

  • কেন্দ্রের উপেক্ষা ও অবহেলা সত্ত্বেও রাজ্য সরকার সাহসিকতার সঙ্গে যা যা উদ্যোগ নিচ্ছে, তাতে বাধা সৃষ্টি করছে বিজেপি।

পশ্চিমবঙ্গে সর্ব স্তরে যে উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে, তা আড়াল করতে ধ্বংসাত্মক রাজনীতির আশ্রয় নিয়েছে বিজেপি। শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলনে পদ্ম শিবিরের বিরুদ্ধে এ ভাবেই তোপ দাগলেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। 

এ দিন সাংবাদিকদের সামনে পার্থ অভিযোগ করেন, ‘বাংলাকে নিরন্তর পিছিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলেছে। কেন্দ্রের উপেক্ষা ও অবহেলা সত্ত্বেও রাজ্য সরকার সাহসিকতার সঙ্গে যা যা উদ্যোগ নিচ্ছে, তাতে বাধা সৃষ্টি করছে বিজেপি।’

তাঁর দাবি, ‘ওদের (বিজেপি-র) কোনও নির্দিষ্ট কর্মসূচি নেই। সকালে চা খেতে খেতে কী ভাবে বাংলার ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও গরিমাকে কালিমালিপ্ত করা যায়, তারই চর্চা চলেছে।’

শিক্ষামন্ত্রী আরও দাবি করেন যে, রাজ্য প্রশাসন মানুষের দরজায় পৌঁছে তাঁদের সমস্যার কথা শুনছে। শুধুমাত্র রাজ্যে উন্নয়নের রূপরেখা নয়, তা বাস্তবায়িত করার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। 

মন্ত্রী দাবি করেন, মুখ্যমন্ত্রীর স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প গোটা বিশ্বের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। এই প্রসঙ্গে তাঁর মন্তব্য, ‘কোনও মুখ্যমন্ত্রীকে দেখিনি এ রকম লাইনে দাঁড়িয়ে সাধারণের সঙ্গে কার্ড সংগ্রহ করছেন।’

রাজ্য সরকারের উন্নয়নমূলক কাজে লাগাতার বাধা সৃষ্টি করছেন বিরোধীরা, অভিযোগ পার্থর। তাঁর কথায়, ‘বিরোধীদের কোনও এজেন্ডা নেই। শুধুমাত্র উন্নয়নের পথে ব্যাঘাত সৃষ্টি করার প্রচেষ্টা চলেছে। কেউ এসে উন্নয়নের কথা বলেন না। অপসংস্কৃতির ধারাপাত রচনা হচ্ছে। খবরে ভেসে থাকতে বিরোধীরা চক্রান্ত করছে।’

একই অভিযোগ তিনি নামোল্লেখ না করে সম্প্রতি তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি-তে যোগ দেওয়া রাজ্যের নেতাদের বিরুদ্ধেও করেন। তাঁর মতে, ‘যাঁরা দল বদলাচ্ছেন, তাঁদের কোনও এজেন্ডা নেই।’

রাজ্য সরকারের উন্নয়নমূলক কাজের ফিরিস্তি দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী দাবি করেন, ‘সারা দেশের তুলনায় বাংলায় বেকারত্বের হার কমেছে। স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পে ঐতিহাসিক সাফল্য অর্জন করা গিয়েছে।’ 

বিজেপি-র বিরুদ্ধে সরাসরি আঘাত হেনে পার্থ বলেন, বিজেপি বাইরে থেকে এসে ভুল তথ্য দিয়ে ইতিহাস বিকৃতির চেষ্টা করছে। তা ছাড়া, সংবিধানের উপরেও আঘাত হানা হচ্ছে। তাঁর অভিযোগ, গণতান্ত্রিক পরিকাঠামোয় বাহুবলের দ্বারা অভীষ্ট সিদ্ধি করার কৌশল তৈরি করেছে গেরুয়া শিবির।

এ দিনের সাংবাদিক বৈঠকের শেষে জোর দিয়ে পার্থ দাবি করেন, বাংলা আরও এগিয়ে যাবে এবং রাজ্যের মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে থাকবেন। তাঁর কথায়, ‘বাংলার বিজয়রথ এগিয়ে চলবে। বিশ্ব বাংলা গড়ার যে প্রতিজ্ঞা আমরা করেছি, তাকে আরও মজবুত করার জন্য বাংলার মানুষ মমতার পাশে থাকবেন।’

বন্ধ করুন