বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > বিধাননগরে ব্যবসায়ী খুনে ২ দোষীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শোনাল আদালত
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

বিধাননগরে ব্যবসায়ী খুনে ২ দোষীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শোনাল আদালত

  • ২০১১ সালের মে মাসে উলটোডাঙা থানায় গাড়ি চালিয়ে পৌঁছন গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তি। তার পরই মৃত্যু হয় তাঁর। নিহত সালাউদ্দিন ছিলেন পরিবহণ ব্যবসায়ী।

বিধাননগরে ব্যবসায়ী সালাউদ্দিন খুনে দোষী সাব্যস্ত মিলি পাল ও বাপি সাহাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শোনাল শিয়ালদা নগর দায়রা আদালত। ৯ বছর পর বুধবার এই মামলার রায় শোনালেন বিচারক। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সঙ্গে ২ জনকে ২ হাজার টাকা করে জরিমানার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। 

২০১১ সালের মে মাসে উলটোডাঙা থানায় গাড়ি চালিয়ে পৌঁছন গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তি। তার পরই মৃত্যু হয় তাঁর। মৃত্যুর আগে তিনি জানান, বিধাননগরের ১৩ নম্বর ট্যাঙ্কের কাছে তাঁকে গুলি করা হয়েছে। নিহত সালাউদ্দিন ছিলেন পরিবহণ ব্যবসায়ী। তদন্তে নেমে তাঁর প্রেমিকা মিলি পালকে বীরভূমের মুরারই থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। জানা যায়, বিয়ে করতে অস্বীকার করায় অন্য প্রেমিক বাপি সাহাকে দিয়ে সালাউদ্দিনকে খুন করিয়েছে মিলিই। 

ঘটনার আদালতে দীর্ঘ বিচারপ্রক্রিয়া চলে। সালাউদ্দিনের গাড়ি থেকে একাধিক প্রমাণ সংগ্রহ করে পুলিশ। জানা যায়, সালাউদ্দিনকে লক্ষ্য করে ৩ রাউন্ড গুলি চালিয়েছিল বাপি। গাড়িতে মেলা সিগারেটের টুকরোয় থাকা লালার সঙ্গে বাপির ডিএনএ মিলে যায়। নিজেদের পক্ষে একাধিক পোক্ত সাক্ষী জোগাড় করেন তদন্তকারীরা। তাদের মধ্যে ছিলেন মিলির এক সহকর্মী ও এক প্রত্যক্ষদর্শী। টিআই প্যারেডে খুনি বাপি সাহাকে সনাক্ত করেন তিনি। মোট ৩৯ জনের সাক্ষ্যগ্রহণের পর মিলি ও বাপিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শোনাল আদালত।

 

বন্ধ করুন