বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > State Budget 2023-24: দুয়ারে পঞ্চায়েত নির্বাচন, আজ রাজ্য বাজেট পেশ করবেন চন্দ্রিমা, কেমন হতে চলেছে?‌

State Budget 2023-24: দুয়ারে পঞ্চায়েত নির্বাচন, আজ রাজ্য বাজেট পেশ করবেন চন্দ্রিমা, কেমন হতে চলেছে?‌

অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য (টুইটার)

আবার বছর ঘুরলেই তোড়জোড় শুরু হবে লোকসভা নির্বাচনের। যা তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। ঋণ শোধ সামলে কতটা সামাজিক প্রকল্পে বরাদ্দ বাড়ানো যায় এখন সেটাই দেখার। কারণ গোটা বিষয়টির পরিকল্পনা করতে হবে এখন থেকেই। দিদির দূত কর্মসূচিতে রাজ্যের মন্ত্রীদের সমস্যার কথা বারবার তুলে ধরেছেন মানুষ।

কেন্দ্রের সাধারণ বাজেট পেশ হয়ে গিয়েছে। আজ, বুধবার চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য পেশ করতে চলেছেন রাজ্য বাজেট। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে এটাই শেষ বাজেট। নিয়োগ দুর্নীতি থেকে বকেয়া ডিএ—বেশ চাপ তৈরি হয়েছে। আবার সামাজিক প্রকল্প অব্যাহত রাখতে হবে। এই অবস্থায় সাধারণের কথা মাথায় রেখে সরকার কী পদক্ষেপ করে সেটাই দেখার। সামাজিক প্রকল্পে বরাদ্দ বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। সামাজিক কল্যাণ প্রকল্প চালানো, ঋণের বোঝা সামলানোর পর এই বাজেট পেশ তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের কাছে পরীক্ষা।

এদিকে সীমিত আয়ের মধ্যে বেড়েছে খরচ। আবার ঋণ এবং রাজকোষের ঘাটতি চিন্তায় রেখেছে রাজ্য সরকারকে। তার উপর কেন্দ্রীয় সরকারের স্থির করে দেওয়া বিধির চাপও আছে। তবে পঞ্চায়েত নির্বাচন সামনে থাকায় গ্রামাঞ্চলের মানুষের কথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিশেষ গুরুত্ব দেবেন বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও কন্যাশ্রী, স্বাস্থ্য সাথী, লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে বিপুল খরচ হয় রাজ্যের। তাছাড়া নির্বাচনের আগে সামাজিক কল্যাণ ক্ষেত্রে বরাদ্দ কাটছাঁট করা একপ্রকার অসম্ভব। বেতন–পেনশন, ঋণ শোধ, প্রশাসনিক খরচ, দফতরভিত্তিক বরাদ্দের মতো প্রয়োজনীয় খরচও আছে।

অন্যদিকে এখন বিভিন্ন প্রকল্পে কেন্দ্রীয় সরকারের অর্থের সুবিধা পেতে চাইছে রাজ্য সরকার। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা, একশো দিনের কাজের মতো গ্রামীণ প্রকল্পে কেন্দ্রীয় বরাদ্দ আটকে রাখা হয়েছে। তার উপর কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়ে দিয়েছে, বিদ্যুৎ ক্ষেত্রে সংস্কার মানলে তবেই রাজ্য ৩.৫% পর্যন্ত রাজকোষ ঘাটতি রাখতে পারবে। না হলে তা নামিয়ে আনতে হবে তিন শতাংশে।

আবার বছর ঘুরলেই তোড়জোড় শুরু হয়ে যাবে লোকসভা নির্বাচনের। যা তৃণমূল কংগ্রেস সরকারের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। তবে ঋণ শোধ সামলে কতটা সামাজিক প্রকল্পে বরাদ্দ বাড়ানো যায় এখন সেটাই দেখার। কারণ গোটা বিষয়টির পরিকল্পনা করতে হবে এখন থেকেই। দিদির দূত কর্মসূচিতে রাজ্যের নেতা–মন্ত্রীদের সামনে গ্রামের সমস্যার কথা বারবার তুলে ধরেছেন সাধারণ মানুষ। সেই সমস্যা কতটা সমাধান হবে সেটা এই বাজেট পেশের পরই জানা যাবে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

ঘরে ঢুকে পরপর গুলি, খুন তৃণমূলের উপপ্রধান, অভিযোগের তির জমি ব্যবসায়ীর দিকে বরোদার বিরুদ্ধে রঞ্জির কোয়ার্টারে মূল্যবান লিড পেল ৪১ বারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই সিরিজ জয় মূল লক্ষ্য, অল্পের জন্য শতরান হাতছাড়া করেও আফসোস নেই ধ্রুব জুরেলের আজও কান পাতলে শোনা যায় আর্তনাদ! সূর্য ডোবার পরে ভয়ের চোটে এখানে যান না কেউ ছেলেকে ‘লুকিয়ে’ই রাখেন নুসরত, প্রথমবার সামনে আনলেন ঈশানের এই বিশেষ কীর্তি রাতে হয়েছিলেন আটক, সকাল হতেই গ্রেফতার বেড়মজুরের তৃণমূল নেতা অজিত মাইতি IND vs ENG 4th Test LIVE: ছক্কা হাঁকিয়ে ভারতকে ৫০ পার করালেন রোহিত শর্মা ভোডাফোন-আইডিয়ার ৩৩% শেয়ার কি ছেড়ে দেবে সরকার? সামনে এল সাফ বার্তা ঘরের মাঠে সব থেকে বেশি টেস্ট উইকেট নেওয়া ৬ স্পিনার, কুম্বলেকে টপকে দুইয়ে উঠলেন অশ্বিন খাবারে খরচ কমছে ভারতীয়দের, ব্যয় বাড়ছে পরিষেবা ও অন্যান্য সামগ্রী কিনতে: রিপোর্ট

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.