বাংলা নিউজ > কর্মখালি > Primary Teacher Job in Govt Schools: প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি পেয়েও ছাড়লেন একই জেলার ৬২২ জন! কিন্তু কেন?

Primary Teacher Job in Govt Schools: প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি পেয়েও ছাড়লেন একই জেলার ৬২২ জন! কিন্তু কেন?

স্কুলে ক্লাস নিচ্ছেন একজন শিক্ষক (HT_PRINT)

প্রশ্ন উঠেছে, এই শূন্যপদগুলির কী হবে? জানা যাচ্ছে, ওয়েটিং লিস্টে থাকা প্রার্থীদের থেকে ক্রমতালিকা অনুযায়ী প্রার্থীদের নিয়োগ করা হতে পারে চাকরিতে। তবে তা করা যাবে কি না, তা নির্ভর করবে আদালতের নির্দেশের ওপর।

প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি পাওয়ার আশায় বছরের পর বছর আন্দোলন, মামলা করেছেন হাজার হাজার চাকরিপ্রার্থীরা। তবে সম্প্রতিক রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০০৯ সালের প্যানেলভুক্ত ৬২২ জন যোগ্য চাকরিপ্রার্থী হাতে নিয়োগপত্র পেয়েও চাকরিতে যোগ দেননি। যাতে অবাক অনেকে। জানা গিয়েছে, ২০০৯ সালের টেট উত্তীর্ণদের মধ্যে থেকে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ১৫০৬ জন যোগ্য প্রার্থীকে প্রাথমিক শিক্ষক হিসেবে কাজে যোগ দেওয়ার জন্য নিয়োগপত্র দেওয়া হয় গত বছর নভেম্বরে। তবে তাঁদের মধ্যে থেকে ৬২২ জন প্রাথমিক শিক্ষক পদে নিয়োগপত্র পেয়েও কাজে যোগ দেননি বলে জানা গিয়েছে। (আরও পড়ুন: দেশের নাম বিতর্কে নয়া মোড়, স্কুলের বই থেকে 'ইন্ডিয়া' মুছে ফেলার সুপারিশ NCERT-র)

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি বাতিল হয়েছিল একাধিক অনিয়মের অভিযোগে। সেই বছরে যে সকল চাকরিপ্রার্থীরা ভাইভার জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন, তাঁদের ২০১৪ সালে ফের একবার পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। ২০০৯ সালের প্রায় আট হাজারের মতো চাকরিপ্রার্থী পরীক্ষা দিয়েছিল সেবারে। ২০১৫ সালে মে মাসে তাঁদের ভাইভা নেওয়া হয়েছিল। এবার রাজ্য শিক্ষা দফতরে চূড়ান্ত প্যানেল জমা দেওয়া হয়েছিল। তবে এরপরও বারংবার এই নিয়ে মামলা হয়। যার জেরে শেষমেশ প্রকাশ করা যায়নি ২০১৫ সালে তৈরি তালিকা। 

আরও পড়ুন: এগিয়ে আসছে প্রাথমিক টেট, কেমন প্রশ্ন হবে এবারে? মডেল প্রশ্নপত্র দেখে নিন এখানে

পরে আদালতের নির্দেশে শেষ পর্যন্ত ২০২২ সালের নভেম্বর মাসে প্রকাশিত হয় ২০০৯ সালের চূড়ান্ত প্যানেল। পরে যোগ্য চাকরিপ্রার্থীদের পাঠানো হয়েছিল নিয়োগপত্র। দক্ষিণ ২৪ পরগনার প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের পক্ষ থেকে নিয়োগপত্র দেওয়া হয় ১৫০৬ জনকে। কিন্তু, তাঁদের মধ্যে ৬২২ জন প্রাথমিক শিক্ষক পদে নিয়োগপত্র পেয়েও যোগ দেননি। কিন্তু কেন এমনটা হল? মনে করা হচ্ছে, এত দীর্ঘদিন অপেক্ষা করতে করতে অন্য কোথাও চাকরি পেয়ে গিয়েছিলেন এই ৬২২ জন। তাই আর প্রাথমিক শিক্ষক হিসেবে নিয়োগপত্র হাতে পেয়েও চাকরিতে যোগ দেননি তাঁরা। এই আবহে আরও প্রশ্ন উঠেছে, এই শূন্যপদগুলির কী হবে? জানা যাচ্ছে, ওয়েটিং লিস্টে থাকা প্রার্থীদের থেকে ক্রমতালিকা অনুযায়ী প্রার্থীদের নিয়োগ করা হতে পারে চাকরিতে। তবে তা করা যাবে কি না, তা নির্ভর করবে আদালতের নির্দেশের ওপর।

কর্মখালি খবর
বন্ধ করুন

Latest News

মেষ-বৃষ-মিথুন-কর্কট রাশির কেমন কাটবে মঙ্গলবার? জানুন রাশিফল হাফিজকে সরানো হলে, ওয়াহাব রিয়াজকে কেন নয়? PCB-এর সিদ্ধান্ত নিয়ে বিস্ফোরক ইনজামাম ২০ বছরের দাম্পত্য, নীলাঞ্জনাকে কবে ডিভোর্স দিচ্ছেন? প্রশ্নের জবাবে যিশু যা বললেন মাউথ ফ্রেশনার খেয়েই মুখ থেকে উঠল রক্ত, শুরু বমি! রেস্তোরাঁয় অসুস্থ ৫ জন, কী ছিল? হাওড়া পুর এলাকায় বন্ধ থাকবে জল সরবরাহ, সমস্ত ওয়ার্ডের বিজ্ঞপ্তি, দিনটা জানুন স্মৃতি-পেরির যুগলবন্দির সঙ্গে, বোলারদের মরণপণ লড়াই,UPW-কে ২৩ রানে হারাল RCB পরমের প্রাক্তন ও বর্তমান পরস্পরকে জড়িয়ে! অনুপমের তৃতীয় বিয়ের মাঝে চর্চায় পিয়া ‘আরও ২জন তৈরি, আসন খুঁজছেন,’ আদালতেই বিচারপতি গাঙ্গুলি প্রসঙ্গ টেনে বললেন কল্যাণ এয়ারপোর্টে গিয়েই মোদীর সঙ্গে দেখা করলেন গডকরি, নাম নেই প্রথম প্রার্থী তালিকায় ডেল স্টেইনের বদলি ঘোষণা করল SRH, হায়দরাবাদে যোগ দিলেন ভেত্তোরির এক সময়ের সতীর্থ

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.