বাংলা নিউজ > ক্রিকেট > এশিয়া কাপ > NCA-তে রাহুলের ফিটনেস টেস্ট ৪ সেপ্টেম্বর,তার পরেই সম্ভবত WC-এর দল ঘোষণা- রিপোর্ট

NCA-তে রাহুলের ফিটনেস টেস্ট ৪ সেপ্টেম্বর,তার পরেই সম্ভবত WC-এর দল ঘোষণা- রিপোর্ট

কেএল রাহুল।

সম্প্রতি জানা গিয়েছে, ৪ সেপ্টেম্বর বেঙ্গালুরুতে ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে ফিটনেস টেস্ট হবে কেএল রাহুলের। এর পরেই বোঝা যাবে রাহুলের পরিস্থিতি। এবং সেই বুঝে পরবর্তী এশিয়া কাপের জন্য রাহুলের অংশগ্রহণ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এশিয়া কাপে ভারতের প্রথম ম্যাচ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বৃষ্টিতে ধুইয়ে গিয়েছে। দুই দলের মধ্যে শেষ পর্যন্ত পয়েন্ট ভাগাভাগি হয়েছে। কিন্তু ভারতের হয়ে পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে নজর কেড়েছেন ইশান কিষাণ। কঠিন সময়ে পাঁচে নেমে ইশান দলের হাল ধরেছিলেন। কেএল রাহুলের অভাব এতটুকু বুঝতে দেননি তরুণ এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটার।

তবে সম্প্রতি জানা গিয়েছে, ৪ সেপ্টেম্বর বেঙ্গালুরুতে ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে (এনসিএ) ফিটনেস টেস্ট হবে কেএল রাহুলের। এর পরেই বোঝা যাবে রাহুলের পরিস্থিতি। এবং সেই বুঝে পরবর্তী এশিয়া কাপের জন্য রাহুলের অংশগ্রহণ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

কুঁচকিতে ছোট একটি চোটের কারণে এশিয়া কাপের প্রথম দুই ম্যাচ থেকে বাদ পড়েছিলেন রাহুল। এক সূত্র টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে জানিয়েছে, ‘ওকে ভালো থাকবে এবং সম্ভবত শ্রীলঙ্কা ভ্রমণের অনুমতি পেয়ে যাবে।’

আরও পড়ুন: কঠিন সময়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে লড়াকু ৮২ ইশানের, স্পর্শ করলেন ধোনি, যুবিকে, অল্পের জন্য ছোঁয়া হল না আজহারকে

জাতীয় নির্বাচকরা সম্ভবত ৫ সেপ্টেম্বর বিশ্বকাপের জন্য দল বেছে নেবেন। তার আগে রাহুলের ফিটনেস টেস্ট নিয়ে নেওয়া হবে। প্রধান নির্বাচক অজিত আগরকার ক্যান্ডি থেকেই বৈঠকে দেবেন।

কেএল রাহুল এবং শ্রেয়স আইয়ার দীর্ঘ চোট থেকে দলে ফিরে আসায় স্বস্তি পেয়েছে ভারত। তবে রাহুল এখনও পুরো ফিট নয়। তিনি এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচ খেলতে পারছেন না। শ্রেয়স অবশ্য ফিট। তবে এশিয়া কাপেই তিনি প্রথম বার কোনও প্রতিযোগীতামূলক ম্যাচ খেলেছেন শনিবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। সেই ম্যাচে অবশ্য তিনি হতাশই করেছেন।

আরও পড়ুন: বার বার তিন বার, শ্রীলঙ্কায় এশিয়া কাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ গেল ভেস্তে

রাহুল এবং শ্রেয়স- দুই তারকা ম্যাচ সিমুলেশন এবং অনুশীলন ম্যাচের মাধ্যমে তাদের ফিটনেস প্রমাণ করার পরেই এশিয়া কাপের দলে সুযোগ পেয়েছিলেন। তবে দল ঘোষণার সময়েই বিসিসিআই-এর প্রধান নির্বাচক অজিত আগরকার প্রকাশ করেছিলেন যে, এশিয়া কাপের প্রথম দু'টি ম্যাচ রাহুল মিস করতে পারেন। তা সত্ত্বেও তিনি এশিয়া কাপের আগে আলুরে ভারত যে ছয় দিনের প্রশিক্ষণ শিবিরের আয়োজন করেছিলেন, সেখানে অংশ নিয়েছিলেন এবং ব্যাট হাতে এবং উইকেটকিপিং সেশনে নিজের ছন্দেই ছিলেন। তাও এশিয়া কাপের গ্রুপ লিগের প্রথম দুই ম্যাচ থেকে তিনি ছিটকে গিয়েছেন।

তবে ইশান যে ভাবে পারফরম্যান্স করে চলেছেন, তাতে তাঁকে বসানোর কোনও প্রশ্ন ওঠে না। সে রাহুল যদি এশিয়া কাপের সুপার ফোর পর্ব থেকে যোগ দেন, সে ক্ষেত্রে একাদশ থেকে কোন প্লেয়ার বাদ পড়বেন, তা নিয়ে জল্পনা রয়েছে। ৪ সেপ্টেম্বর (সোমবার) নেপালের বিরুদ্ধে ভারতের গ্রুপ পর্বের শেষ তথা দ্বিতীয় ম্যাচ।

বন্ধ করুন