বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ > পুরভোটের লড়াই > পুরভোটের আগে দিলীপ-হিরণ দূরত্ব, খড়গপুরে সাংসদ-বিধায়ক 'দ্বন্দ্বে' অস্বস্তিতে BJP

পুরভোটের আগে দিলীপ-হিরণ দূরত্ব, খড়গপুরে সাংসদ-বিধায়ক 'দ্বন্দ্বে' অস্বস্তিতে BJP

হিরণ চট্টোপাধ্যায় ও দিলীপ ঘোষ (ফাইল ছবি)

ভোটের আগে খড়গপুরে ইস্তাহার প্রকাশ করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি তথা স্থানীয় সাংসদ দিলীপ ঘোষ। তবে সেই অনুষ্ঠানে দেখা গেল না বিধায়ক হিরণকে।

খড়গপুরে বিজেপির সাংসদ-বিধায়ক দ্বন্দ্বের জেরে বিজেপির অস্বস্তির অন্ত নেই। দলের অন্তর্দ্বন্দ্ব রোখার জন্য পুরভোটের জন্য প্রার্থী করা হয়েছিল অভিনেতা তথা খড়গপুর সদরের বিধায়ক হিরণ্ময় চট্টোপাধ্যায়। তবে তাতেও খড়গপুরে অস্বস্তি বজায় থাকল পদ্ম শিবিরের। উল্লেখ্য, ভোটের আগে খড়গপুরে ইস্তাহার প্রকাশ করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি তথা স্থানীয় সাংসদ দিলীপ ঘোষ। তবে সেই অনুষ্ঠানে দেখা গেল না বিধায়ক হিরণকে।

শনিবার সন্ধ্যায় খড়গপুরের ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের মণ্ডল কার্যালয়ে গিয়েছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে বিজেপির এই কার্যালয়েই ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠেছিল। অভিযুক্তদের মধ্যে নাম ছিল বিজেপিরই এক বিক্ষুব্ধ নেতার। রিপু নায়েক নামক সেই বিক্ষুব্ধ নেতার সঙ্গে দেখা করেন দিলীপ ঘোষ। এরপর তিনি ১৯ এব ৭ নম্বর ওয়ার্ডে প্রচারে যান দিলীপ ঘোষ। এরপর রাতে ইস্তাহার প্রকাশ করেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন খড়গপুর পুরভোটের সব বিজেপি প্রার্থী। তবে সেই অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি বিধায়ক তথা পুরভোটের তারকা প্রার্থী হিরণকে। যদিও দ্বন্দ্বের জল্পনায় আমল দিতে নারাজ ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী হিরণ।

হিরণ জানান, তিনি সন্ধ্যায় প্রচারে বেরিয়েছিলেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার করেন তিনি। তাই তিনি ইস্তাহার প্রকাশের অনুষ্ঠানে অনুপস্থিত ছিলেন। মুখে দিলীপ ঘোষের জন্য প্রশংসাসূচক কথাও বলেন হিরণ। বলেন, ‘নিজের ব্যস্ত সূচির মধ্যে থেকে মূল্যবান সময় বের করে সাংসদ এসেছিলেন। এটাই যথেষ্ট। আমরা গর্বিত।’

 

 

বন্ধ করুন