বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ‘‌উত্তরপ্রদেশের ৩০ জন গুন্ডা অস্ত্র হাতে ধরা পড়েছে’‌, বিস্ফোরক অভিযোগ মমতার
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

‘‌উত্তরপ্রদেশের ৩০ জন গুন্ডা অস্ত্র হাতে ধরা পড়েছে’‌, বিস্ফোরক অভিযোগ মমতার

এবার প্রকাশ্য সভা থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে বহিরাগত গুণ্ডা ঢোকানোর অভিযোগও করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাত পোহালেই শুরু হবে নবান্ন দখলের লড়াই। তার মধ্যে এবার প্রকাশ্য সভা থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে বহিরাগত গুন্ডা  ঢোকানোর অভিযোগও করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রথম দফায় ভোট রয়েছে শুভেন্দু অধিকারীর জেলা পূর্ব মেদিনীপুরেও। তবে শুক্রবার পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরের সভা থেকে তৃণমূলনেত্রী অভিযোগ করেন, ‘‌সব খবর আমার কাছে আছে। আপনারা জানেন, কাঁথি বাসস্ট্যান্ড থেকে রাত ১১টার সময় উত্তরপ্রদেশের ৩০ জন গুণ্ডা অস্ত্র হাতে ধরা পড়েছে। বুঝতে পারছেন আপনারা, কী করার ষড়যন্ত্র করছে এঁরা, মীরজাফররা? এদের জবাব দেবেন। আর সবরকম সুবিধা পেতে চাইলে আমাকে ভোট দেবেন।’‌ মুখ্যমন্ত্রীর এই অভিযোগে রাজ্য–রাজনীতিতে তুলকালাম কাণ্ড ঘটে গিয়েছে।

এরপরই দাসপুরের সভা মঞ্চ থেকে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুড়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌২৮ তারিখ থেকে পাঁচদিন থাকব নন্দীগ্রামে। সব লক্ষ্য রাখব। ভোট করে তারপর যাব। মনে রাখবেন বাইরের গুন্ডা আসছে। বহিরাগতদের ঢুকতে দেবেন না। গুন্ডারা যদি বন্দুক নিয়ে দাঁড়ায় তাহলে মায়েদের বলব তাঁরা হাতে যা পাবে তা নিয়ে তাড়া করবে। আমি বারবার বলেছি ওরা বহিরাগত গুন্ডাদের নিয়ে এসে ভোট করাবে। গুলির বদলে গুলি চালানো আমার রাজনীতি নয়। হেরে যাচ্ছে বুঝে গিয়েছে বিজেপি।’‌

এদিন দাসপুর থেকে ফের ইভিএম পরীক্ষার উপর জোর দেন নেত্রী। চড়া রোদ মাথায় নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসের জায়গা নেই। মেশিন ভালো করে পরীক্ষা করে নিন। ভিভিপ্যাট দেখে নিন। বিজেপির মতো শয়তানের দল নেই। ইউপি, বিহারের পুলিশ আসবে৷ বিজেপির ইউপি’‌র পুলিশ আসবে। তাই নিজেরা থাকবেন। ওরা দিলেও বিরিয়ানি আর চা খাবেন না।’‌ তবে এদিন দাসপুর থেকে উত্তরবঙ্গ পর্যন্ত রাস্তা হবে বলে জানান তিনি।

এরপরই দাসপুরের সভা মঞ্চ থেকে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুড়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌২৮ তারিখ থেকে পাঁচদিন থাকব নন্দীগ্রামে। সব লক্ষ্য রাখব। ভোট করে তারপর যাব। মনে রাখবেন বাইরের গুন্ডা আসছে। বহিরাগতদের ঢুকতে দেবেন না। গুন্ডারা যদি বন্দুক নিয়ে দাঁড়ায় তাহলে মায়েদের বলব তাঁরা হাতে যা পাবে তা নিয়ে তাড়া করবে। আমি বারবার বলেছি ওরা বহিরাগত গুন্ডাদের নিয়ে এসে ভোট করাবে। গুলির বদলে গুলি চালানো আমার রাজনীতি নয়। হেরে যাচ্ছে বুঝে গিয়েছে বিজেপি।’‌ এই বিষয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‌এই সব অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ওনারা এভাবে আগে ভোট করাতেন। এই অভ্যাস ওনাদের আছে। সেটাই এখন আমাদের নামে বলা হচ্ছে। এসব আমাদের সংস্কৃতি নয়।’‌

এদিন দাসপুর থেকে ফের ইভিএম পরীক্ষার উপর জোর দেন নেত্রী। চড়া রোদ মাথায় নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসের জায়গা নেই। মেশিন ভালো করে পরীক্ষা করে নিন। ভিভিপ্যাট দেখে নিন। বিজেপির মতো শয়তানের দল নেই। ইউপি, বিহারের পুলিশ আসবে৷ বিজেপির ইউপি’‌র পুলিশ আসবে। তাই নিজেরা থাকবেন। ওরা দিলেও বিরিয়ানি আর চা খাবেন না।’‌ তবে এদিন দাসপুর থেকে উত্তরবঙ্গ পর্যন্ত রাস্তা হবে বলে জানান তিনি।|#+|

উল্লেখ্য, নন্দীগ্রামে ১ এপ্রিল ভোট। এদিন সেই প্রসঙ্গও তুলে তৃণমূল সুপ্রিমো জানান, এরা মেশিন নকল করে, বহিরাগত গুন্ডা নিয়ে আসে। নির্বাচনের পরে আগামী একমাস পাহাড়া দিতে হবে ইভিএম মেশিন। যে সব ভোটের গণনা কেন্দ্র আছে, সেখানে সারাক্ষণ নজর রাখতে হবে। দলের কর্মীদের একটা টিম বানিয়ে সেখানে থাকতে হবে। যারা সব সময় নজর রাখবে।

বন্ধ করুন