বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘বিশেষ’-ভক্ত সোনামণির ডাক; সাড়া ‘বড়দা’ বুম্বাদার, ভিডিয়ো কলে জুড়ে দিলেন শিলাজিৎ
প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্যে - টুইটার)
প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্যে - টুইটার)

‘বিশেষ’-ভক্ত সোনামণির ডাক; সাড়া ‘বড়দা’ বুম্বাদার, ভিডিয়ো কলে জুড়ে দিলেন শিলাজিৎ

গায়ক শিলাজিতের মাধ্যমে 'বিশেষ'-ভক্ত সোনামণির সঙ্গে ভিডিয়ো কলে আড্ডা দিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

কেন তিনি আজও বাঙালির প্রিয় নায়ক তা আরও একবার হাতে নাতে প্রমাণ করে দিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।গড়গড়ি গ্রামের 'বিশেষ'-ভক্ত সোনামণির আবদার রাখলেন তিনি। কথা দিয়েছিলেন খোদ টলিউডের 'ইন্ডাস্ট্রি'।শিলাজিতের গ্রামে তাঁর পাতানো বোন সোনামনির সঙ্গে ভিডিয়ো কলে মুখোমুখি হলেন বু্ম্বাদা। গায়ক শিলাজিতের মাধ্যমে সোনামণির সঙ্গে ভিডিয়ো কলে আড্ডা দিলেন তিনি। 'বোন' বলে ডেকে আশীর্বাদও করতে দেখা গেল তাঁকে।

সময় সুযোগ পেলেই কলকাতা ছেড়ে বীরভূমের গড়গড়ি গ্রামের উদ্দেশ্যে পাড়ি দেন শিলাজিৎ। সেখানে তাঁর আস্তানায় রয়েছে। গড়গড়ি গ্রামের মানুষদের সঙ্গে তাঁর দারুণ দোস্তি। সেখানকারই বাসিন্দা সোনামণি রুজ। সম্পর্কে তিনি এই জনপ্রিয় গায়কের গ্রামতুতো বোন হন। বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন সোনামণির 'স্বপ্নের নায়ক' প্রসেনজিৎ। কিছুদিন আগে শিলাজিতের মোবাইলে একটি ভিডিয়ো বার্তায় 'দাদার উদ্দেশে অনুরোধ জানিয়েছিলেন, এক বার যদি কোনও ভাবে তাঁর সঙ্গে একটু মোলাকাত করতে পারেন তিনি। 

নেটপাড়ায় ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিয়ো নিমিষে পৌঁছেছে প্রসেনজিতের কাছেও। আর সবাইকে অবাক করে তিনি নিজে একটি ভিডিয়ো বার্তা পাঠিয়েছিলেন সোনামণির উদ্দেশে।সোনামণির আবদার রাখবেন তিনি। কথা দিয়েছিলেন খোদ টলিউডের 'ইন্ডাস্ট্রি'।সোনামনির বার্তা ও আমন্ত্রণ পেয়ে যে তিনি আপ্লুত সেকথাও বিন্দুমাত্র লুকোননি প্রসেনজিৎ।

এবার সোনামণির স্বপ্নের নায়ক নিজের তাঁর খবরাখবর নিলেন। তাঁকে ভাল থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন। টাওয়ারের কারণে খুব আস্তে শোনা গিয়েছে টলিউড ‘ইন্ডাস্ট্রি’র গলা। 

তবে তাতে কোনও অসুবিধে হয়নি কারও। সোনামণিকে জানিয়েছেন তিনি ওঁর 'বড়দা' আর শিলাজিৎ 'ছোড়দা'। আশীর্বাদও করেন। কথাও দিলেন করোনার প্রকোপ কমলে তিনি গড়গড়ি আসবেন। শিলাজিৎও ফোনেই বুম্বাদাকে দত্তক গ্রাম গড়গড়ির কিছু অংশ দেখান। খবরাখবরও দিলেন কিছু। এরপর সোনামণির থেকে বিদায় নেওয়ার আগে প্রসেনজিতকে বলতে শোনা গেল ফের একবার তিনি সোনামণির সঙ্গে কথা বলবেন। অতিমারি কমলেই তিনি এক দিন যাবেন শিলাজিতের গ্রামে। কিছুটা সময় কাটাবেন তাঁর সঙ্গে।সত্যিই করবেন।

বন্ধ করুন