বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > স্কাইডাইভিংয়ে খুলল না প্যারাস্যুট, মাটিতে আছড়ে পড়ে মারা গেলেন জনপ্রিয় টিকটকার
স্কাইডাইভিং করতে গিয়ে প্যারাস্যুট না খোলায় মৃত্যু হল কানাডার টিকটকার তানিয়ার। 

স্কাইডাইভিংয়ে খুলল না প্যারাস্যুট, মাটিতে আছড়ে পড়ে মারা গেলেন জনপ্রিয় টিকটকার

  • প্রায় ১০ লক্ষ মানুষ টিকটকে ফলো করতেন তানিয়াকে। ২১ বছরের এই তরুণী ভালোবাসতেন অ্যাডভেঞ্চার। সময়মতো প্যারাস্যুট খুলতে পারেননি, ফলে প্রাণ গেল অকালেই। 

আকাশে ভাসার শখ তো অনেকেরই থাকে। তবে পরিস্থিতি যে এমন মারাত্মক হতে পারে, তা বোধহয় কেউ স্বপ্নেও ভাবতে পারেন না। সময়মতো প্যারাস্যুট না খোলায় মৃত্যু হল এক টিকটক তারকার। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই শোকে কাতর হয়েছেন তাঁর ভক্তরা। 

কানাডার বাসিন্দা বিখ্যাত টিকটকার তানিয়া পরদেজি। সময়মতো প্যারাস্যুট খুলতে পারেননি তিনি। ফলে মাটিতে আছড়ে পড়েন। গুরুতর চোট পান। হাসপাতালে নিয়ে গেল তাঁকে মৃত ঘোষণা করে সেখানকার ডাক্তাররা। আরও পড়ুন: ভারতীর ছেলেকে গাল টিপে আদর করল এক ভক্ত, তারপর যা হল… অবিশ্বাস্য!

কানাডার অন্টারিয়োতে ঘটেছে ওই ঘটনা। তানিয়ার বয়স মাত্র ২১। নানা দুসহাসিক কাজ করে তাঁর ভিডিয়ো তিনি পোস্ট করতেন টিকটকে। স্কাইডাইভিংয়ের হাতেখড়ি ছিল এটা, তাও আবার একা। আর ঘটে গেল দুর্ঘটনা। টরন্টোর স্কাইডাইভ সংস্থার তরফে বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, তানিয়া অনেক নীচে এসে প্যারাস্যুট খোলার চেষ্টা করেছিলেন। ফলত উপযুক্ত বাতাসের চাপের অভাব থাকায় তা খোলেনি। এক সূত্রের দাবি তানিয়ে প্যারাস্যুট খুলতেই দেরি করে ফেলেছিলেন। ওই সংস্থার মতে এই মৃত্যু একটি অনভিপ্রেত ঘটনা। আরও পড়ুন: দুই ছেলে নিয়ে পুজো করল একতা-তুষার! গণেশ পুজোয় বসল চাঁদের হাট

টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিজিওলজি নিয়ে পড়ছিলেন তানিয়া। Skydive Toronto in Innisfil, Ontario থেকে শর্ট কোর্সও করেন। যা তাঁকে একা স্কাই ডাইভিং করার যোগ্যতা দিয়েছিল। প্রায় চার হাজার ফুট উচ্চতা থেকে ঝাঁপ দিয়েছিলেন এই তরুণী। টিকটকে তাঁর ইনফ্লুয়েন্সারের সংখ্যা ছিল ১০ লাখের বেশি। তানিয়ার এক বন্ধু সেদেশের সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, ‘অ্যাডভেঞ্চারের শখ ছিল ওর। বলত না হলে লাইফ খুব বোরিং’! 

 

বন্ধ করুন