বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মিডিয়ার নজর এড়িয়ে NCB দফতরে পৌঁছালেন দীপিকা পাড়ুকোন

আজ সকাল দশটায় এনসিবির এলভিন রোড গেস্ট হাউজে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল দীপিকা পাড়ুকোনের। তবে সংবাদমাধ্যমের চোখে ধূলো দিয়ে নির্ধারিত সময়ের ১০ মিনিট আগেই এনসিবির দফতরে পৌঁছে গেলেন দীপিকা। এদিন নিজের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে এনসিবির দফতরের জন্য বার হতে হতে দেখা গেল না দীপিকাকে। সকাল থেকে ওত পেতে বসেছিল সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরা। সময় যত গড়াতে থাকে, ততই জল্পনা দানা বাঁধে কোথায় আছেন দীপিকা?

সূত্রের খবর ভোর রাতেই দীপিকা নিজের বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে যান দীপিকা, যাতে মিডিয়ার কড়া নজরদারি এড়াতে পারেন তিনি। এদিন সকাল ৯.৫০ মিনিটে একটি ধূসর রঙের ক্রেটা গাড়িতে করে আচমকাই  এনসিবির দফতরে প্রবেশ করেন দীপিকা। 

জানা যাচ্ছে প্রায় সাড়ে তিনটে নাগাদ বাড়ি থেকে বেরিয়েছেন দীপিকা, এবং মুম্বইয়ের একটি হোটেলে রণবীর সিং, দীপিকা এবং নায়িকার লিগ্যাল টিমের একটি ম্যারাথন বৈঠক চলে। 

গতাকল এনসিবির ম্যারাথন জেরার মুখোমুখি হন দীপিকার পাড়ুকোনের ম্যানেজার করিশ্মা প্রকাশও।আট ঘন্টা ধরে জেরা পর্ব চলে করিশ্মার।আজও সমন করা হয়েছে করিশ্মাকে। উল্লেখ্য সংবাদমাধ্যমে ফাঁস হওয়া মাদক চ্যাটে করিশ্মার কাজ থেকেই নিষিদ্ধ মাদক চাইতে দেখা গিয়েছে দীপিকাকে। সেই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের অ্যাডমিনও ছিলেন দীপিকা। ‘মাল হ্যায় ক্যায়া' ম্যানেজারের উদ্দেশে এই কথা বলতে শোনা গিয়েছে দীপিকাকে। ২০১৭ সালের এই হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটে দীপিকা এও জানান- তাঁর ' হ্যাশ ' লাগবে , ' উইড ' নয় ।

ম্যানেজার করিশ্মাকে কি কোকোতে অনুষ্ঠিত পার্টির জন্য ড্রাগ জোগাড় করতে বলেছিলেন দীপিকা? এনসিবির আধিকারিকদের এই প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে দীপিকাকে। আজ ফের তলব করা হয়েছে করিশ্মাকে। প্রয়োজনে দু-জনকে মুখোমুখি বসিয়েও জেরা করা হতে পারে।

দীপিকার পাশাপাশি আজকের অ্যাকশন-প্যাক এই দিনে কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থার প্রশ্নের মুখে পড়তে হবে সারা আলি খান এবং শ্রদ্ধা কাপুরকেও। সকাল ১১টায় এনসিবির মুম্বই সদর দফতর, ব্যালাড স্ট্রিটে হাজিরা দিতে বলা বয়েছে এই দুই নায়িকা।

বন্ধ করুন