বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > তীব্র জ্বরের ঘোরে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে ছবির সংলাপ আউড়ে গেছিলেন নওয়াজ!
হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে জ্বরের ঘোরে ছবির সংলাপ আউড়ে গেছিলেন নওয়াজ। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস 
হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে জ্বরের ঘোরে ছবির সংলাপ আউড়ে গেছিলেন নওয়াজ। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস 

তীব্র জ্বরের ঘোরে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে ছবির সংলাপ আউড়ে গেছিলেন নওয়াজ!

  • 'রমন রাঘব ২.০'-র শ্যুটিং চলাকালীন অসুস্থ হয়ে পড়েন নওয়াজ। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে জ্বরের ঘোরেও ওই ছবির সংলাপ নাগাড়ে আউড়ে গেছিলেন নওয়াজ।পুরো ঘটনার কথা ফোন করে অনুরাগকে জানিয়েছিলেন নওয়াজের স্ত্রী আলিয়া।

বুধবার ৪৭-এ পা রাখলেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী। এইমুহূর্তে উত্তর প্রদেশের বুধানা গ্রামে নিজের পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন তিনি। নিজের ফিল্মি কেরিয়ারে বিভিন্ন ছবিতে নজরকাড়া অভিনয়ের পাশাপাশি তাঁর সুপারহিট এবং মজাদার সংলাপে বুঁদ হয়েছে দর্শক। নওয়াজের কেরিয়ারের অন্যতম সেরা ছবি 'রমন রাঘব ২.০'। অনুরাগ কশ্যপ পরিচালিত এই ক্রাইম থ্রিলারে এক সাইকোপ্যাথ খুনির চরিত্রে দেখা গেছিল এই অভিনেতাকে। বলাই বাহুল্য ছবিতে নওয়াজের পারফরম্যান্স চাক্ষুস করে মুগ্ধ হওয়ার পাশাপাশি শিউরে উঠেছিল দর্শক। একবার এক সাক্ষাৎকারে পরিচালক অনুরাগ কশ্যপ জানিয়েছিলেন 'রমন রাঘব ২.০'-এর শ্যুটিং চলাকালীন অসম্ভব অসুস্থ হয়ে পড়েন নওয়াজ। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয় অভিনেতাকে। কিন্তু হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে জ্বরের ঘোরেও ওই ছবির সংলাপ একনাগাড়ে আউড়ে গেছিলেন নওয়াজ। পুরো ঘটনার কথা ফোন করে অনুরাগকে জানিয়েছিলেন নওয়াজের স্ত্রী আলিয়া।

প্রসঙ্গত, এই ছবির শ্যুটিং মুম্বইয়ের বিভিন্ন অঞ্চলে শ্যুট করা হয়েছিল। যার মধ্যে ছিল ধারাভি বস্তি ও অন্যান্য জায়গা। চিত্রনাট্যের খাতিরে বিভিন্ন অস্বাস্থ্যকর এবং অপরিছন্ন জায়গায় শ্যুটিং করার ফলে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছিলেন নওয়াজ। দিন পাঁচেকের জন্য হাসপাতালে ভর্তিও হয়েছিলেন তিনি। গোটা ঘটনা প্রসঙ্গে অনুরাগের কথায়,' হ্যাঁ,ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছিল নওয়াজ। জ্বর পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকায় হাসপাতালেও ভর্তি করা হয় তাঁকে। এরপরেই একদিন ওঁর স্ত্রী আলিয়ার ফোন পাই। ফোনের ওপর থেকে উত্তেজিত স্বরে আলিয়া প্রশ্ন ছোড়েন,' কী করেছ কী তুমি!' এরপর আলিয়ার থেকেই জানতে পারি জ্বরের ঘোরেও 'রমন রাঘব'-এর ছবির সংলাপ আউড়ে চলেছেন নওয়াজ। শুনে ভয় পেয়ে গেলেও পরে বুঝতে পারি ছবি এবং নিজের কাজের প্রতি নওয়াজের 'কমিটমেন্ট'-এর মাত্রা।' পরিচালকের কথায়,' শাহরুখ-সলমনের মতো বিরাট তারকাদের সঙ্গে ছবি করে যেমন আনন্দ পাওয়া যায় অন্যদিকে তেমন এই ধরনের ছবি করেও অদ্ভুত তৃপ্তি পাওয়া যায়।'

বন্ধ করুন