বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘যাদবপুরের ডন’ সায়নীর বাবা, দিদি নম্বর ১-এ শুনিয়েছিলেন মেয়ের বাড়ি ছাড়ার গল্প!
বাবার সাথে সায়নী। 
বাবার সাথে সায়নী। 

‘যাদবপুরের ডন’ সায়নীর বাবা, দিদি নম্বর ১-এ শুনিয়েছিলেন মেয়ের বাড়ি ছাড়ার গল্প!

  • চোখে কালো সানগ্লাস, গলায় সোনার হার, সায়নীর বাবা সমর ঘোষের সোয়্যাগ দেখার মতো!

দিদি নম্বর ১-র একটি পুরনো এপিসোড ভাইরাল হয়েছে। যেখানে সায়নী ঘোষের সাথে এসেছিলেন তাঁর বাবা সমর ঘোষ। আর শো-য় সঞ্চালক রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে আড্ডা দিতে গিয়ে জমিয়ে দেন তিনি! বোঝা যায় বেশ রসিক মানুষ তিনি। 

সবসময় চোখে রোদ চশমা পরে থাকেন সমরবাবু। সঙ্গে গলায় থাকে একগুচ্ছ সোনার গয়না, বাপি লাহিরির স্টাইলে। সায়নীর কথায়, ‘আমি চোখ খুলে থেকেই বাবাকে সানগ্লাস পরে দেখছি।’

নিজের মা-বাবার বিয়ের গল্পও করতে দেখা যায় সায়নীকে এদিন। জানান তাঁর বাবার প্রথমে একটা পানের দোকান ছিল। সেখান থেকেই মায়ের সাথে প্রেম। রচনা যখন সমরবাবুকে প্রশ্ন করেন মেয়ের অভিনয় নিয়ে তাঁর কী মত ছিল, জানান, ‘ওদের মা-মেয়ের বোঝাপড়া। আমি কী বলব। আজকালকার মেয়ে। কখন রাগ করেল বেড়িয়ে যাবে। কিছু বলি না আমি।’

সঙ্গে সমরবাবু আরও বলেন, মাঝে মেয়ে দু'বছরের জন্য বাড়ি থেকে চলে গিয়েছিল। সায়নীর কথায়, সেই সময় তাঁর সাথে কথা বলত না বাবা ঠিক করে। এমনকী, তাঁর বাড়িতেও যায়নি। শুধু একটা ঘড়ি পাঠিয়ে দিয়েছিল আর তাতে লেখা ছিল, তোমার শুভ সময় আসুক। 

সমর ঘোষের কনস্ট্রাকশনের ব্যবসা। সেই করেই বাড়ি-গাড়ি করেছেন। সায়নীর কথায়, ‘আমাকে কথায় কথায় বলে তুমি কী করলে, আমাকে দেখ, আমার কত জমি-বাড়ি’!

বন্ধ করুন