বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > প্রথম সাক্ষাতে কাজলকে দেখে বড্ড বিরক্ত হয়েছিলেন শাহরুখ, জানালেন ‘কিং খান’ স্বয়ং!
কে বলবে যে প্রথম আলাপে দু'জনের দু'জনকে মোটেও ভালো লাগেনি! ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
কে বলবে যে প্রথম আলাপে দু'জনের দু'জনকে মোটেও ভালো লাগেনি! ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

প্রথম সাক্ষাতে কাজলকে দেখে বড্ড বিরক্ত হয়েছিলেন শাহরুখ, জানালেন ‘কিং খান’ স্বয়ং!

  • ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসে অন্যতম জনপ্রিয় জুটি শাহরুখ খান এবং কাজল।একালের তর্কাতীতভাবে অনস্ক্রিন সেরা জুটির তকমা পাবেন তাঁরা। তবে প্রথম আলাপে দু'জনের দু'জনকে মোটেও ভালো লাগেনি! 

ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসে অন্যতম জনপ্রিয় জুটির নাম শাহরুখ খান এবং কাজ। এই দুই বলি-তারকা যতবারই জুটি বেঁধে পর্দায় এসেছেন ততবারই বক্স অফিস থেকে দর্শকের হৃদয়ে উঠেছে ঝড়। একালের তর্কাতীতভাবে অনস্ক্রিন সেরা জুটির তকমা পাবেন তাঁরা। নয়ের দশকে শুরু দিক তাঁদের অভিনীত প্রথম ছবি 'বাজিগর' মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই পর্দায় তাঁদের একসঙ্গে ফের একবার দেখার জন্য আগ্রহের পারদ চড়া শুরু করেছিল দর্শকদের। যা আজও অটুট। পর্দার বাইরে রিয়েল লাইফেও তাঁরা পরস্পরের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বন্ধু। ছোটপর্দার কোনও শোয়ে হোক কিংবা নিজেদের ছবির প্রচারে সাংবাদিক সম্মেলন, শাহরুখ-কাজলের মিষ্টি বন্ধুত্ব বরাবরই মন ছুঁয়েছে তাঁদের অনুরাগীদের। তবে জানেন কি তাঁদের প্রথম প্রথম সাক্ষাৎ কিন্তু এতটাও 'মিষ্টি' ছিল না। প্রথম আলাপে দু'জনের দু'জনকে মোটেও ভালো লাগেনি! অন্যদের কাছে পরস্পরের বিরুদ্ধে নালিশও ঠুকেছিলেন তাঁরা। এবিপি নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সে কথা কবুল করেছিলেন শাহরুখ-কাজল দু'জনেই।

সেটা ছিল 'বাজিগর' ছবির শ্যুটিংয়ের প্রথম দিন।বছরেরও প্রথম দিন। অর্থাৎ ১লা জানুয়ারি। আগের রাত্রে ভরপুর পার্টি করে সেদিন কাজে উপস্থিত হয়েছেন 'কিং খান'. কারণ শাহরুখের মতে বছরের প্রথম দিন জমিয়ে কাজ করতে পারলে সারা বছর কাজ করার একটা ইচ্ছের জাগিয়ে রাখে। তাছাড়া নায়কের দৃঢ় বিশ্বাস বছরের প্রথম দিন কাজ করতে পারলে বাকি দিনগুলোতেও তাঁর হাতে কাজ থাকবে। 'আমি তো আসলে মজদুর ক্লাসে পড়ি,তাই প্রতিদিন আমার কাজের প্রয়োজন!' মজা করে মন্তব্য করেছিলেন শাহরুখ। যাক,ফিরে আসা যাক 'বাজিগর' এর শ্যুটিংয়ের প্রথম দিনের প্রসঙ্গে। 'কিং খান' এর কথায়,' সেদিন এমনিতেই গোটা সেট চুপচাপ ছিল কারণ ছবির প্রধান ক্যামেরাম্যানকে গতরাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ, তাঁর কাছে লাইসেন্স না থাকার জন্য। আমি এক মনে চিত্রনাট্য পড়ে মুখস্থ করে চলেছি আরকানের সামনে একমাত্র ঘ্যানঘ্যান করে বেজে চলেছে কাজলের চিৎকার। জোর গলায় এ ওর সঙ্গে আড্ডা মেরেই চলছে সে। শেষপর্যন্ত থাকতে না পেরে বেশ বিরক্ত হয়েই আমার মেক-আপ ম্যানকে জিজ্ঞেস করেছিলাম কাজলের ব্যাপারে। সঙ্গে বলেছিলাম এ কেমন ধরণের অভিনেত্রী যে একটু চুপচাপ পর্যন্ত থাকতে পারে না!' কথাটা যে পরবর্তী সময়ে কানে গেছিল কাজলের সে কথা বলাই বাহুল্য।

অন্যদিকে শাহরুখকে দেখেও মনে ধরেনি কাজলের। নায়িকার কথায়, প্রথম দিন বাজিগরের সেটে গিয়েই তিনি দেখেছিলেন কারোর সঙ্গে কথা না বলে একমনে ছবির চিত্রনাট্য পড়ে চলেছেন শাহরুখ। আলাপ করতে গেলেও খুব গম্ভীরভাবে একটা-দুটোর বেশি কথা পর্যন্ত বলেননি। স্বাভাবিকভাবেই শাহরুখকে 'নাকউঁচু' বলে মনে হয়েছিল কাজলের। এমনকি শাহরুখ যে তাঁর গলার আওয়াজকে ময়ূরের কর্কশ স্বরের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন সেকথা তাঁর আজও মনে আছে বলে হাসতে হাসতে ওই সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন কাজল।

বন্ধ করুন