বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Sritama-Madan: ‘পার্থ-অর্পিতা ২.০’, মদনের বাহুডোরে শ্রীতমাকে দেখে কটাক্ষ, জবাব দিলেন অভিনেত্রী
জবাব দিলেন শ্রীতমা

Sritama-Madan: ‘পার্থ-অর্পিতা ২.০’, মদনের বাহুডোরে শ্রীতমাকে দেখে কটাক্ষ, জবাব দিলেন অভিনেত্রী

  • 'মদন মিত্র আমার বাবার মতোন'- ভাইরাল ছবি প্রসঙ্গে মন্তব্য শ্রীতমার। যদিও টলিপাড়ায় এখন ‘টক অফ দ্য টাউন’ মদন-শ্রীতমার ‘ঘনিষ্ঠ ছবি’।

কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্রকে জড়িয়ে ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি পোস্ট করেন অভিনেত্রী তথা কাউন্সিলর শ্রীতমা ভট্টাচার্য। পার্থ-অর্পিতার কাণ্ডের মাঝে নিমেষে ভাইরাল সেই ছবি। আর শুধু ভাইরাল নয়, ওই ছবির জেরে কুরুচিকর আক্রমণের শিকার শ্রীতমা। মদন মিত্রর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে নানান কাটাছেঁড়া এবং কটাক্ষ। 

বিধায়ক-কাউন্সিলরের জড়াজড়ি করা এই ছবি এখন টলিপাড়ায় ‘টক অফ দ্য টাউন’। 'কালারফুল বয়' মদনের সঙ্গে শ্রীতমার সম্পর্কের সমীকরণ কী? এই ভাইরাল ছবি আর ট্রোলিং নিয়েই বা কী বলছেন ‘মা’-এর ঝিলিক? 

শ্রীতমার কথায়, ‘মদন মিত্রকে আমি আমার বাবার বন্ধু হিসেবে বহু বছর আগে থেকেই চিনি। ওঁনার সঙ্গে আমাদের পারিবারিক সম্পর্ক। বাবার ওপেন হার্ট সার্জারির সময় মদনদা এবং ওঁর পুরো পরিবার আমাদের পাশে ছিলেন। বাবা চলে যাওয়ার পরে উনিই আমার বাবার জায়গা নিয়েছেন’। শ্রীতমার কথায় মদন মিত্র তাঁর অভিভাবক, পিতৃতুল্য। 

নিজেকে নিয়ে হামেশাই গুঞ্জন শোনেন শ্রীতমা। খানিকটা অভ্যস্থও হয়ে গিয়েছেন শোবিজের জগতে এতটা পথ পার করে ফেলে। তবুও খারাপ লাগা তো থাকেই। এক অনলাইন সংবাদমাধ্যমকে অভিনেত্রী জানালেন, ‘মদন মিত্রকে জড়িয়ে কোনও কথা ছড়ালেও খুব খারাপ লাগে।’ আর ‘ঘনিষ্ঠ ছবি’ এই কথা নিয়েও আপত্তি রয়েছে শ্রীতমার। মদন মিত্রর সঙ্গে তাঁর কোনও ঘনিষ্ঠ ছবি নেই। 

শ্রীতমা জানান, ‘আমি আপনাকে জড়িয়ে ধরে ছবি তুললেই আপনি আর আমি কি খুব ঘনিষ্ঠ? বাকিদের কাছে ঘনিষ্ঠতার মাপকাঠি ঠিক কী? আমার জানা নেই।’ মদন মিত্রের সঙ্গে নিজের সম্পর্ককে ‘সুস্থ’ আখ্যা দিয়ে শ্রীতমা যোগ করেন, ‘একজন বাবাকে মেয়ে জড়িয়ে ধরে যেভাবে ছবি তোলে, ঠিক সেই আবেগ নিয়েই তোলা ওই ছবিটি’। 

আকাশ আট চ্যানেলে একটি কুকারি শো হোস্ট করেন ‘মা’ খ্যাত অভিনেত্রী তথা তৃণমূলের কামারহাটি বিধানসভার কাউন্সিলর শ্রীতমা ভট্টাচার্য। দিন কয়েক আগে সেই শো-তেই অতিথি হিসাবে হাজির হয়েছিলেন মদন মিত্র। অনুষ্ঠানের ফাঁকে তোলা ছবিই নিয়েই যত্ত কাণ্ড!

 

বন্ধ করুন