বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > Rules to Eat Nuts: রোজ আমন্ড, আখরোট, বাদাম খাচ্ছেন? নিয়ম মেনে খাচ্ছেন তো? নাহলে উলটো ফল হতে পারে
বাদাম খাওয়ার সময়ে কী কী নিয়ম মনে রাখবেন?
বাদাম খাওয়ার সময়ে কী কী নিয়ম মনে রাখবেন?

Rules to Eat Nuts: রোজ আমন্ড, আখরোট, বাদাম খাচ্ছেন? নিয়ম মেনে খাচ্ছেন তো? নাহলে উলটো ফল হতে পারে

  • আমন্ড, আখরোট বা অন্য বাদামের অনেক গুণ। কিন্তু নিয়ম মেনে না খেলে শরীরের বড় ক্ষতিও হয়ে যেতে পারে। জেনে নিন, কীভাবে খাবেন?

বাদাম পুষ্টিগুণে ভরা। বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন, মিনারেল তো বটেই, তার পাশাপাশি আরও হাজারো গুণ রয়েছে বাদামে। কিন্তু বাদাম খাওয়ার সময়ে কয়েকটি নিয়ম মেনে চলতে হয়। না হলে উপকারের চেয়ে অপকার হতে পারে।

সম্প্রতি আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞ দীক্ষা ভাবসার জানিয়েছেন, বাদাম খাওয়ার সময়ে কী কী নিয়ম মানতে হবে। রইল সেই নিয়মগুলি।

বাদাম খাওয়ার নিয়ম:

  • আয়ুর্বেদ বলছে, বাদাম বেশ ভারী খাবার। অর্থাৎ হজম করা কঠিন। তাই বাদাম খাওয়ার আগে ৬-৮ ঘণ্টা সেগুলি ভিজিয়ে রাখা ভালো।
  • ভিজিয়ে খাওয়া সম্ভব না হলে শেঁকা বাদামও খেতে পারেন।
  • আমন্ডের মতো বাদামের খোসা ছাড়িয়ে খেতে পারেন। তাতে হজমের সুবিধা হতে পারে।

কখন খাওয়া উচিত বাদাম:

  • সকালে খাওয়া সবচেয়ে ভালো। বিশেষ করে খালি পেটে।
  • সারা দিন ধরেই খাওয়া যায় অল্প পরিমাণে। একটা-দুটো করে। সন্ধ্যার পরে না খাওয়াই ভালো।

রোজ কী পরিমাণে বাদাম খাওয়া উচিত:

যাঁদের তেমন কোনও অসুখ নেই, পর্যাপ্ত জল খান, হজমশক্তি ভালো, অল্পবিস্তর এক্সারসাইজ রোজ করেন— তাঁরা রোজ এক মুঠো বাদাম খেতে পারেন। তার বেশি না খাওয়াই ভালো।

বেশি বাদাম খেলে কী হতে পারে:

  • পেট ভার
  • শরীর গরম হয়ে যাওয়া
  • পেটের গণ্ডগোল
  • ওজন বেড়ে যাওয়া
  • খিদে কমে যাওয়া

কারা বাদাম খাবেন না:

  • যাঁদের অ্যাসিডিটি বা অম্বলের সমস্যা আছে, তাঁরা বাদাম খাবেন না।
  • বাদামে অ্যালার্জি আছে যাঁদের।
  • IBS বা পেটের অন্য সমস্যা থাকলে
  • আলসারের সমস্যা থাকলে।

বন্ধ করুন