বাড়ি > ঘরে বাইরে > একটু পাকিস্তানকে দেখে শেখো- আফগানিস্তান, নেপালকে জ্ঞান দিল চিন
ওয়াং ই (REUTERS)
ওয়াং ই (REUTERS)

একটু পাকিস্তানকে দেখে শেখো- আফগানিস্তান, নেপালকে জ্ঞান দিল চিন

  • ওয়াং ই বলেন চার দেশ যেন ভৌগলিক সুবিধার সুযোগ নেয়, আদানপ্রদান বৃদ্ধি করে ও মধ্য এশিয়ার দেশগুলির সঙ্গে সম্পর্ক সুদৃঢ় করে। একই সঙ্গে অঞ্চলে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখার কথাও বলেন তিনি।

কোভিড মোকাবিলা ও বেল্ট অ্যান্ড রোড প্রকল্পের কাজে সহযোগিতার জন্য আফগানিস্তান, নেপাল ও পাকিস্তানের সঙ্গে বৈঠক করল চিন। মুখে এই কথা বললেও আসলে কুটনীতির মঞ্চে এটা ভারতকে কোণঠাসা করার একটা অভিপ্রায়, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। বৈঠকে চিনের বন্ধু পাকিস্তানের থেকে নেপাল ও আফগানিস্তানকে শিখতেও বলেন চিনের বিদেশমন্ত্রী। 

ওয়াং ই বলেন চার দেশ যেন ভৌগলিক সুবিধার সুযোগ নেয়, আদানপ্রদান বৃদ্ধি করে ও মধ্য এশিয়ার দেশগুলির সঙ্গে সম্পর্ক সুদৃঢ় করে। একই সঙ্গে অঞ্চলে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখার কথাও বলেন তিনি। 

China-Pakistan Economic Corridor তৈরীর কাজে চার দেশের আরও সক্রিয় হওয়া ও এটিকে আফগানিস্তানে নিয়ে যাওয়ার ওপর জোর দেন তিনি। একই সঙ্গে হিমালয়ের মধ্যে দিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো বৃদ্ধি করার ওপর গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেন চিনের বিদেশমন্ত্রী। প্রসঙ্গে ভারত এই প্রকল্পের বিরোধিতা করে কারণ এটা পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের ওপর দিয়ে যায়। 

দক্ষিণ এশিয়ায় সহযোগিতা নিয়ে বৈঠক, সেখানে ভারত উপস্থিত নেই! এটা যে শুধু সহযোগিতার জন্য বৈঠক নয়, বরং বিশেষ বার্তা দেওয়ার জন্য বৈঠক, তা বলাই বাহুল্য। এদিন ওয়াং বলেন যে ভালো পড়শি পাওয়া সৌভাগ্যের কথা। সেই পরিপ্রেক্ষিতে চিন-পাকিস্তানের মৈত্রী থেকে নেপাল, আফগানিস্তান শিখতে পারে বলে তিনি জানান। 

শুধু কোভিড মোকাবিলাই নয়, এরপরে অর্থনীতির চাকা ঘোরাতেও চার দেশকে একযোগে কাজ করতে হবে, বলে জানান ওয়াং। এই বৈঠকে পাকিস্তানের বিদেশ ও অর্থমন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন। নেপালের বিদেশমন্ত্রী ও আফগানিস্তানের অস্থায়ী বিদেশমন্ত্রীও এই ভার্চুয়াল বৈঠকে যোগদান করেন। 

 

 

 

বন্ধ করুন