বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সবপক্ষকে খুশি রাখতেই মুখ্যমন্ত্রী পরিবর্তনের ভাবনা কংগ্রেসে?পদ ছাড়তে তৈরি বাঘেল
ভূপেশ বাঘেল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)
ভূপেশ বাঘেল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)

সবপক্ষকে খুশি রাখতেই মুখ্যমন্ত্রী পরিবর্তনের ভাবনা কংগ্রেসে?পদ ছাড়তে তৈরি বাঘেল

রবিবার দিল্লিতে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল। সেখানে তিনি কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়ঙ্কা গান্ধী ও কংগ্রেস নেতা পি এল পুনিয়ার সঙ্গে বৈঠক করেন।

দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব চাইলে মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দিতেও প্রস্তুত ভূপেশ বাঘেল। ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রীকে ঘিরে এমন খবরই প্রকাশ্যে আসছে। আড়াই বছর হয়েছে, ছত্তিশগড়ে ক্ষমতায় এসেছে কংগ্রেস। কিন্তু এই আড়াই মাসের মধ্যেই ছত্তিশগড়ে কংগ্রেস সরকার সংকটের মুখে পড়ল।

কয়েকদিন ধরেই কংগ্রেসের অন্দরে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে জল্পনা চলছিল। গত রবিবার দিল্লিতে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল। সেখানে তিনি কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়ঙ্কা গান্ধী ও কংগ্রেস নেতা পি এল পুনিয়ার সঙ্গে বৈঠক করেন। এই বৈঠক প্রসঙ্গে ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী জানান, ‘‌বীরভদ্রজিকে শ্রদ্ধা জানাতে হিমাচলপ্রদেশে গিয়েছিলাম। করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পর এই প্রথম বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে দেখা করি। অনেকক্ষণ প্রিয়ঙ্কাজী ও পুনিয়াজীর সঙ্গেও কথা হয়েছে। রাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও বিভিন্ন সরকারি প্রকল্প সহ একাধিক বিষয় পুনিয়াজির সঙ্গে কথা হয়েছে।’‌ একইসঙ্গে তিনি জানান, ‘‌আপনারা যতবারই প্রশ্ন করুন না কেন, আমার উত্তর একটাই থাকবে। দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব যদি আমাকে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরে যাওয়ার কথা বলে, তাহলে আমি সরে যেতে প্রস্তুত।’‌

উল্লেখ্য, ছত্তিশগড়ে কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার পরই মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন তা নিয়ে দলের অন্দরে একটা টানাপোড়েন চলছিল। এরমধ্যে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে তিনটি নাম উঠে এসেছিল। বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও ছিলেন টি এস সিং দেও ও টি সাহু। ভূপেশ বাঘেল মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বাকি দুজনকেও মন্ত্রিসভায় জায়গা দেওয়া হয়। কিন্তু কংগ্রেসের পরিকল্পনা ছিল, ভূপেশ বাঘেল ও টি এস সিং দেও দুজনকেই আড়াই বছর করে মুখ্যমন্ত্রী পদে রাখা হবে। এবার দলের সেই পরিকল্পনার কথা সামনে এসে পড়ায় এবার রাজ্য রাজনীতিতে মুখ্যমন্ত্রীর রদবদল নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে।

বন্ধ করুন