বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শক্তির নিরিখে আমেরিকা, ইজরায়েলের সঙ্গে ভারতের মিল খুঁজে পেলেন অমিত শাহ, কী সেটি?

শক্তির নিরিখে আমেরিকা, ইজরায়েলের সঙ্গে ভারতের মিল খুঁজে পেলেন অমিত শাহ, কী সেটি?

অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। (PTI Photo) (PTI)

অমিত শাহ জানিয়েছেন, নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে ২০১৬ সালে উরিতে জঙ্গি হামলা হয়েছিল। পুলওয়ামাতে হয়েছিল ২০১৯ সালে। আমরা তার দশ দিনের মধ্যে সার্জিকাল স্ট্রাইক ও এয়ার স্ট্রাইক করেছিলাম। এখন গোটা বিশ্ব জানে ভারতের সীমান্ত নিয়ে কেউ পাঙ্গা নেবে না, তাহলে তার যোগ্য জবাব দেওয়া হবে।

আমেরিকা ও ইজরায়েলের মতো ভারতও এখন সীমান্ত নিয়ে কেউ সমস্যা তৈরি করলে পালটা রুখে দিতে পারে। জানিয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। পুলওয়ামাতে জঙ্গি হামলার পরে সার্জিকাল স্ট্রাইকের কথাও তুলে ধরেন তিনি। এদিকে বিগত জমানার কথা উল্লেখ করেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, আগে যখন পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন ভারতের কোথাও হামলা চালাত তখন খালি বিবৃতি জারি করা হত। আর নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর গোটা বিষয়টি বদলে গিয়েছে।

তিনি বলেন, আগে শুধু দুটি দেশ ছিল। আমেরিকা ও ইজরায়েল। সীমান্ত ও সেনার সঙ্গে কেউ পাঙ্গা দেখাতে চাইলে ওই দেশগুলিই পালটা রুখে দিত। তবে এবার আমাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্যোগে আমাদের মহান দেশও এই গ্রুপে অংশ নিয়েছে।

অমিত শাহ জানিয়েছেন, নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে ২০১৬ সালে উরিতে জঙ্গি হামলা হয়েছিল। পুলওয়ামাতে হয়েছিল ২০১৯ সালে। আমরা তার দশ দিনের মধ্যে সার্জিকাল স্ট্রাইক ও এয়ার স্ট্রাইক করেছিলাম। কিছু মানুষ আমাদের বলতেন এর ফলাফল কী হতে পারে?  আমি তাঁদের বলেছিলাম এর একটি বড় প্রভাব রয়েছে। এখন গোটা বিশ্ব জানে ভারতের সীমান্ত নিয়ে কেউ পাঙ্গা নেবে না, তাহলে তার যোগ্য জবাব দেওয়া হবে।

পাশাপাশি কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ, সিএএ আরোপ প্রসঙ্গেও তিনি মুখ খোলেন। তিনি বলেন, ২০১৯ সালের ৫ আগস্ট ভারতের ইতিহাসে সোনার অক্ষরে লেখা থাকবে। অনেকেই বলতেন ৩৭০ ধারা বিলোপ হলে রক্তবন্যা হবে। কিন্তু এখন পাথর ছোঁড়ার সাহসও কেউ পায়না।

বন্ধ করুন