বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > অবিশ্বাস্য! দুবাইয়ে ৪০ কোটি টাকার লটারি জয় ভারতীয় ট্যাক্সি ড্রাইভারের
দুবাইয়ে ৪০ কোটি টাকার লটারি জয় ভারতীয় ট্যাক্সি ড্রাইভারের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
দুবাইয়ে ৪০ কোটি টাকার লটারি জয় ভারতীয় ট্যাক্সি ড্রাইভারের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

অবিশ্বাস্য! দুবাইয়ে ৪০ কোটি টাকার লটারি জয় ভারতীয় ট্যাক্সি ড্রাইভারের

  • তেমন বেশি বেতন পেতেন না। বেতন যাতে একটু বাড়ে, সেই আশায়-আশায় থাকতেন। এবার এক লহমায় পালটে গেল তাঁর জীবন।

তেমন বেশি বেতন পেতেন না। বেতন যাতে একটু বাড়ে, সেই আশায়-আশায় থাকতেন কেরালার রেঞ্জিথ সোমারাজন। এবার এক লহমায় পালটে গেল তাঁর জীবন। নয় বন্ধুর সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে ২০ মিলিয়ন দিরহামের (ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৪০ কোটি টাকার) জ্যাকপট জিতলেন। ‘খলিজ টাইমস’-এর প্রতিবেদনে একথা জানানো হয়েছে।

ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০০৮ সাল থেকে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে আছেন রেঞ্জিথ। ৩৭ বছরের ভারতীয় ব্যক্তি বলেন, ‘আমি ২০০৮ সাল থেকে এখানে আছি। দুবাই ট্যাক্সি এবনং অন্যান্য সংস্থায় কাজ করেছি। গত বছর একটি সংস্থায় ড্রাইভার ও সেলসম্যান হিসেবে কাজ করতাম। কিন্তু বেতন কমিয়ে দেওয়ার ফলে জীবন কঠিন ছিল।’

রেঞ্জিথ জানান, গত তিন বছর ধরে লটারির টিকিট কিনতেন। কিন্তু কখনও ভাবেননি যে তিনিই প্রথম পুরস্কার জিতবেন। বড়জোর দ্বিতীয় বা তৃতীয় পুরস্কার পাওয়ার আশায় বুক বাঁধতেন। কিন্তু এবার একেবারে জ্যাকপট পান তিনি। রেঞ্জিথ বলেন, ‘আমরা মোট ১০ জন থাকি। বাকি অন্য দেশের নাগরিক। কেউ ভারত, কেউ পাকিস্তান, কেউ নেপাল, কেউ বাংলাদেশের লোক। তাঁরা একটি হোটেলের পার্কিংয়ে কাজ করেন। আমরা দুটি কিনলে একটি টিকিট বিনামূল্যে পাওয়ার অফারে টিকিট কিনেছিলাম। প্রত্যেকে ১০০ দিরহাম দিয়েছিলাম। গত ২৯ জুন আমার নামে টিকিট কেনা হয়েছিল।’ 

সেই ২০ মিলিয়ন দিরহাম ১০ জনের মধ্যে ভাগ হবে। তারইমধ্যে লটারি জয়ের খবর জানাজানি হওয়ার পর বন্ধু, প্রিয়জনরা রেঞ্জিথকে ফোন করতে থাকেন। যিনি জানিয়েছেন, নিজেদের ভাগ্যপরীক্ষা থাকা উচিত সকলের। একদিন নিশ্চিতভাবে ভাগ্যশালী দিন আসবে।

বন্ধ করুন