বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আরিয়ান মাদক মামলায় নয়া মোড়, সাক্ষ্য দেওয়া গোয়েন্দা জালিয়াতি মামলায় ‘পলাতক’
এনসিপি দফতরে আটক আরিয়ান খান ও কেপি গোসাভি (ফাইল ছবি এএনআই) (ANI)
এনসিপি দফতরে আটক আরিয়ান খান ও কেপি গোসাভি (ফাইল ছবি এএনআই) (ANI)

আরিয়ান মাদক মামলায় নয়া মোড়, সাক্ষ্য দেওয়া গোয়েন্দা জালিয়াতি মামলায় ‘পলাতক’

  • এনসিবির তরফে জানানো হয়েছিল, প্রাইভেট ইনভেস্টিগেটর কেপি গোসাভি ও বিজেপি নেতা ভানুশালী মাদক মামলায় সাক্ষী।

অভিনেতা শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খানের গ্রেফতারিতে নয়া মোড়। আরিয়ানের বিরুদ্ধে সাক্ষ প্রদানকারী গোয়েন্দা পুণের এক জালিয়াতি মামলায় পলাতক। সম্প্রতি একটি ছবি ভাইরাল হয় যাতে দেখা যায় কেপি গোসাভি একজন প্রাইভেট গোয়েন্দা সেলফি তুলছেন ধৃত আরিয়ান খানের সঙ্গে। এনসিবির অভিযানে কেপি গোসাভি এবং বিজেপি নেতার থাকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে এনসিপি। এরই মাঝে এনসিবির তরফে জানানো হয়, গোসাভি ও বিজেপি নেতা ভানুশালী মামলায় সাক্ষী।

জানা গিয়েছে গোসাভি এক তদন্তকারী সংস্থাকে সাহায্য করলেও অপর এক মামলায় তদন্তকারীদের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে বেরাচ্ছে। জানা গিয়েছে, ২০১৮ সাল থেকে পুণের এক জালিয়াতি মামলায় 'পলাতক' গোসাভি। পুণে পুলিশের দাবি, কেপি গোসাভি একটি জালিয়াতি মামলার একজন অভিযুক্ত। ২০১৯ সালে একটি চার্জশিট দাখিল করে পুণে পুলিশ এবং তাতে সিআরপিসির ৮২ নম্বর ধারার অধীনে জানানো হয় যে অভিযুক্ত গোসাভি পলাতক।

এই কেসটি ২০১৮ সালের মে মাসের। পুণের বাসিন্দা চিন্ময় দেশমুখ গোসাভি এবং তার কোম্পানি কেপিজি ড্রিমজ সলিউশনের বিরুদ্ধে ৩.০৯ লক্ষ টাকার প্রতারণার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছিলেন। দেশমুখের অভিযোগ অনুযায়ী, গোসাভি এবং তার কোম্পানি বিদেশে চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁর সঙ্গে প্রতারণা করেছিল।

উল্লেখ্য, মুম্বই উপকূলের অদূরে ক্রুজে মাদক অভিযানে এক বিজেপি নেতা ও এক প্রাইভেট গোয়েন্দার জড়িত থাকার খবর প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়েছে জোর রাজনৈকিক তরজা। গতকাল নবাব মালিক দাবি করেছিলেন যে শাহরুখ খানের ছেলের গ্রেফতারির নেপথ্যে রাজনৈতিক অভিসন্ধি রয়েছে। নবাব মালিকের অভিযোগ ছিল বিজেপি এবং এনসিবির যোগসাজশের জেরেই আটক হয়েছেন আরিয়ান খান।

 

বন্ধ করুন